গণপরিবহন চালু হতে পারে যেদিন, সাধারণ ছুটি বাড়ছে – OnlineCityNews

গণপরিবহন চালু হতে পারে যেদিন, সাধারণ ছুটি বাড়ছে

সবকিছু ঠিক থাকলে স্বা’স্থ্যবিধি মেনে আগা’মী ১৭ মে থেকে সী’মিত আকারে দেশে গণপরিবহন চালু হচ্ছে। তবে ঈদের সময় চা’রদিন সম্পূর্ণভা’বে তা বন্ধ থাকবে। গণমাধ্য’মের সঙ্গে আলাপ’কালে জনপ্র’শাসন প্রতিমন্ত্রী মো. ফরহাদ হোসেন এসব কথা জানিয়েছেন। তবে বাস, ট্রেন, নৌ কর্তৃপক্ষ এখনো এ বিষয়ে’ জানে না।

প্রতিমন্ত্রী মো. ফরহাদ হো’সেন বলেছেন, জী’বিকার তাগিদে একটু একটু করে সবই চালু করতে হবে। তবে তা স্বা’স্থ্যবিধি মেনে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন কিভাবে চলবে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ৪০ সিটের গাড়ি ২০ সিট প’রিপূর্ণ হবে। অর্থাৎ এক আ’সন ফাঁকা রেখে মা’নুষকে বসাতে হবে। গাড়িতে উঠার আগে স্যা’টাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে দিতে হবে। জীবা’ণুনাশক স্প্রে করতে হবে।

১৭ মে থেকে গণপরিবহন চা’লা’নোর বিষয়ে রে’লমন্ত্রী নুরুল ই’সলাম সুজন বলেছেন, ১৭ মে থেকে ট্রেন চালানোর বিষয়ে এখনো কোনো নির্দে’শনা পাই’নি। সরকার যখনই চাইবে তখনই যাত্রী’বাহী ট্রেনও চলবে। একই কথা বলে’ছেন, নৌপ’রিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীও। মন্ত্রি’প’রিষদ থেকে যখনই নি’র্দেশনা দেয়া হবে তখনই নৌ’যান চলাচল শুরু করবে বলে জানান তিনি।

এভাবে নিয়ম মেনে বাস চালা’তে খুব একটা আ’গ্রহী নয় মালিকপক্ষ। এ অবস্থায় কি হবে- জা’নতে চাইলে তিনি বলেন, জীবন যেমন জ’রুরি তে’মনি জী’বিকাও দরকার। আর এ দুটো’কে সম’ন্বয় করতে গেলে এর বি’কল্প কিছু নেই।

ঈদের সময় সর’কারি কর্মজী’বীদের স্টেশনে থাকতে বলার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, দেশে বর্ত’মানে জরুরি পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আর জরুরি পরি’স্থিতিতে সরকারি কর্ম’জীবীদের দায়’দায়িত্ব বেশি। যে কোনো সময় যে কোনো দা’য়িত্ব পড়তে পারে। এই দায়িত্ব পালনের জন্য সরকা’রি কর্ম’জীবী’দের স্টেশন ছা’ড়তে না করা হয়েছে।

ঈদে চার’দিন গণপ’রিবহন বন্ধ থাকার কারণ জানি’য়ে তিনি বলেন, আমা’দের দেশে ঈদ উৎসবে সবাই গ্রা’মের বাড়ি যেতে চান। এর ফলে বাসে, বাসে’র ছাদে, ট্রেনে, ট্রেনের ছাদে, নৌকায়, লঞ্চে যে যেভাবে পারেন সবাই গ্রা’মের বাড়িতে ছুটেন।

কিন্তু এবার ক’রো’নায় দেশের পরি’স্থিতি ভালো না, মানুষ’কে বলা হচ্ছে ঘরে থাকতে। তবুও মানুষ ঘরে থাক’ছেন না। একপ’র্যায়ে জী’বিকার তাগিদে ভি’ড় কম হয় এমন কিছু প্র’তিষ্ঠান খুলে দিতে হ’য়েছে। কিন্তু ঈদের’ সময় গণ’পরিবহন চালু থাকলে মানুষের ভিড় বেশি হবে। এতে সংক্র’মণের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পা’রে। মূলত সংক্র’ম’ণের ঝুঁ’কির কারণেই ঈদের সময় চার’দিন গণপ’রি’বহন বন্ধ থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *