দেশে চালু হলো তৃতীয় লি’ঙ্গের জন্য মা’দ্রাসা – OnlineCityNews
Breaking News
Home / সারা দেশ / দেশে চালু হলো তৃতীয় লি’ঙ্গের জন্য মা’দ্রাসা

দেশে চালু হলো তৃতীয় লি’ঙ্গের জন্য মা’দ্রাসা

Advertisement

দেশে প্রথম বেসর’কা’রিভাবে হি’জড়া জনগো’ষ্ঠীর (তৃতীয় লি’ঙ্গ) জন্য একটি আ’লাদা মা’দ্রাসা চালু হয়েছে। সে’খানে বিনা খরচে তারা প’ড়তে পারবেন। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) ঢাকার কা’ ম’রাঙ্গীরচর ছা’তা ম’সজিদ রোড এলাকার দাও’য়াতুল কো’রআ’ন নামে তৃতীয় লি’ঙ্গের মা’দ্রাসাটির আ’নুষ্ঠানিক উ’দ্বোধন হয়। শনিবার (৭ নভেম্বর) থেকে সেখানে তৃ’তীয় লি’ঙ্গের শি’ক্ষার্থীরা ভ’র্তি হতে পারবেন।

জানা গেছে, ম’রহু’ম আহ’মেদ ফে’রদৌস বারী চৌধুরী ফা’উন্ডেশনের উ’দ্যোগে এই মা’দ্রাসাটি চালু হয়েছে। এই মা’দ্রাসায় পড়া’লেখার জন্য হি’জড়াদের কোনও খ’রচ লাগবে না। ২০২০ সালে স’রকার স্বী’কৃত ক’ওমি সি’লেবাস অ’নুযায়ী মা’দ্রাসাটি পরি’চালিত হবে। প্রাথমিকভাবে ১০ জন শি’ক্ষকের সম’ন্বয়ে অ’নাবাসিক এই মা’দ্রাসাটির যা’ত্রা শুরু হয়েছে।

মা’দ্রাসাটির প্র’তিষ্ঠাতা পরি’চালক হা’ফেজ মা’ওলানা মু’ফতি মোহাম্ম’দ আ’ব্দুর রহমান আজাদ জা’নান, শনিবার থেকে ভর্তি শুরু হলে ব’লতে পা’রবো ক’তজন শি’ক্ষার্থী ভ’র্তি হচ্ছে। এ’খানে পড়াশুনা করতে শি’ক্ষার্থীদের কো’নও খরচ লা’গবে না। আপাতত মা’দ্রাসাটি অ’নাবা’সিক হবে।

তিনি বলেন, ‘এই ‘মা’দ্রাসার কা’জ তো শু’রু হয়ে’ছে আ’রও আ’গে। ত’খন কা’ ম’রা’ঙ্গীরচরে বিভিন্ন জা’য়গায় প্রায় দে’ড়শতা’ধিক হি’জ’ড়াকে পড়ি’য়েছি। তারাও এখানে প’ড়ালেখা করবে।’

১০ জন শি’ক্ষক দিয়ে মা’দ্রাসাটি পরি’চালিত হবে জা’নিয়ে আব্দুর রহমান বলেন, ‘তারা মা’দ্রাসার শি’ক্ষক হলেও অনেক অ’ভিজ্ঞ। তাদের মধ্যে বাংলা, ইংরেজি ও কা’রিগরিতে দ’ক্ষ অনেক শি’ক্ষকও আছেন।’

মা’দ্রা’সাটির শিক্ষা ও প্র’শিক্ষণ সচিব মো’হাম্ম’দ আব্দুল আ’জিজ হু’সাইনী বলেন, ‘হি’জড়া তো সমা’জের মধ্যে অব’হেলিত ও সুবি’ধাবঞ্চিত। তারা ‘শিক্ষা অ’র্জন করতে পারছে না। এই কারণে তারা সমা’জের ভেতরে উচ্ছৃ’ঙ্খল। কিন্তু তাদের তো আ’ল্লাহ সৃ’ষ্টি করেছেন। কো’নও মা’য়ের স’ন্তান। তাদের আ’দর্শ শি’ক্ষা দেও’য়ার দা’য়িত্ব তো আমা’দেরই। এদের আ’দর্শ করতে হলে প্রথমে কো’রআন শি’ক্ষা দরকার। তাই এই মা’দ্রাসার উ’দ্যোগ নে’ওয়া। এরপর তা’দের কা’রিগরি শি’ক্ষা দিয়ে মান’বস’ম্পদে প’রিণত ক’রাই আমা’দের চি’ন্তা।’

শুরুতে মা’দ্রাসাটিতে তৃতীয় লি’ঙ্গের শি’ক্ষার্থীদের কো’রআন শি’ক্ষা দেওয়া হবে উ’ল্লেখ করে আ’ব্দুল আ’জিজ বলেন, ‘মা’দ্রাসায় নু’রানি বিভাগ থেকে নিয়ে হে’ফজুল কো’রআন, দাও’রায়ে হা’দিস থাকবে। আ’সলে গত বছর সর’কার কও’মি মা’দ্রাসার যে সি’লেবাসের (সন’দ) স্বী’কৃতি দি’য়েছে সে’ই অ’নুসারে এই মা’দ্রাসাটি পরি’চালনা করবো।’

প্রা’থমিক প’র্যায়ে মা’দ্রাসার শি’ক্ষকদের ১০ হা’জার টাকা’ ক’রে বে’তন দে’ওয়া হচ্ছে জা’নিয়ে তিনি বলেন, যারা ঊ’র্ধ্বতন প’র্যায়ে আছে তাদের বেত’ন ৩০ হা’জার টাকা। শিক্ষ’কসহ মা’দ্রাসার পরি’চালনার খ’রচ দিচ্ছে ম’রহু’ম আহমেদ ফের’দৌস বারী চৌ’ধুরী ফাউ’ন্ডেশন।

ঢাকা দ’ক্ষিণ সিটির ৫৭ ওয়ার্ডে অবস্থিত দাও’য়াতুল কো’রআন তৃতীয় লি’ঙ্গের মাদ্রা’সাটির উদ্বো’ধন অনুষ্ঠানে হি’জরা ক’ল্যাণ ফাউ’ন্ডেশনের স’ভাপতি আ’বিদা সুল’তানা মি’তু বলেন, ‘তৃ’তীয় লি’ঙ্গের মানু’ষদের জন্য এই প্রথম দেশে শি’ক্ষাপ্র’তিষ্ঠান চালু হ’য়েছে। হি’জড়াদের মৌ’লিক চা’হিদা মে’টানোর সুযোগ দেওয়া হলে তারা রাস্তা’য় নেমে কা’উকে বির’ক্ত করবে না। তারাও সাধারণ মা’নুষের মতো জী’বন’যাপন করতে চায়। আমি এ’জন্য মাদ্রা’সাটির উদ্যো’ক্তা’দের ধন্যবা’দ জা’নাই।’

এই সময় ৫৭ ন’ম্বর ওয়া’র্ডের কা’উন্সিলর সা’ইদুল মাদ’বর বলেন, ‘সিটি মেয়র ব্যা’রিস্টার শেখ ফ’জলে নুর তাপসের সঙ্গে কথা বলে তৃ’তীয় লি’ঙ্গের জন্য প্র’তিষ্ঠিত হওয়া এই মাদ্রা’সার জন্য কিছু ক’রার চেষ্টা করবো। তা’দের কর্ম’সংস্থানের ব্য’বস্থা ক’রারও চে’ষ্টা থাকবে।’

আনু’ষ্ঠানি’কভাবে শি’ক্ষাপ্র’তিষ্ঠান পে’য়ে খুশি হিজ’ড়া সম্প্রদায়। তা’রা বলছেন, সরকা’র স্বী’কৃতি দি’লেও মূল’ধারার শিক্ষা’প্রতি’ষ্ঠানগুলোতে তা’দের শিক্ষার ব্যবস্থা নেই। তা’রা লে’খাপড়া করে সর’কারি-বে’সরকারি পর্যা’য়ে চা’করি ক’রতে চায়।

মা’দ্রা’সার উ’দ্বোধনী অ’নুষ্ঠানে কথা হয় শি’ক্ষার্থী রানী হিজ’ড়ার স’ঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আমা’দের শি’ক্ষার কোন’ও ব্যব’স্থা নেই। সরকার স্বীকৃ’তি দি’লেও শি’ক্ষার সে’রকম কো’নও ব্য’বস্থা ক’রে নাই। শি’ক্ষাপ্রতি’ষ্ঠা’নগুলো ‘ভ’র্তি নেয় না। ‘আ’মা’রও তো মানুষ। সাধারণ মা’নুষের মতো আ’মা’দেরও শি’ক্ষা অর্জ’ন করা’র অধি’কার র’য়েছে।’

তিনি আ’রও বলে’ন, ‘যা’ত্রাবাড়ীতে আমা’দের অর্ধ’শতাধিক হি’জড়া রয়ে’ছে। স’বাই মু’সলিম। এ’খানকার হু’জুররা যা’ত্রাবাড়ীতে আমা’দের আ’বাসস্থলে গি’য়ে কো’রআন প’ড়াতেন। কোর’আন শিখে আম’রাও মা’ওলানা হতে চাই। রাস্তায় গিয়ে ‘টাকা তুলে পেট চালাতে চাই না। চা’করি করে ‘জীবন চা’লাতে চাই।’

Advertisement
Advertisement

Check Also

খালি হাতে ঢাকায় এসে ৯০ হাজার টাকায় শুরু, এখন বিক্রি ২৫ কোটি টাকা

Advertisement Advertisement ১২ বছর বয়সে চাঁদপুরের কচুয়া থেকে কাজের উদ্দেশ্যে ঢাকায় আসেন মো. আমান উল্লাহ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!