১৫ দিনের জন্য হলেও খুলবে প্রাথমিক বিদ্যালয়! – OnlineCityNews
Breaking News
Home / শিক্ষা / ১৫ দিনের জন্য হলেও খুলবে প্রাথমিক বিদ্যালয়!

১৫ দিনের জন্য হলেও খুলবে প্রাথমিক বিদ্যালয়!

Advertisement
Advertisement

মহামারী করো’না পরিস্থিতি বিবেচনার মধ্যে ১৫ দিনের জন্য হলেও প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে মন্ত্রণালয়। এ লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত পরিসরের সিলেবাস তৈরির কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ওই সংক্ষিপ্ত সিলেবাস শেষ করে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানায়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাঠ্যপুস্তকের মৌলিক সক্ষমতা তৈরিতে ৩৯ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে গত ৩০ অক্টোবর সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নতুন করে ১৪ দিন ছুটি বাড়ানোয় সেটি আর সম্ভব হচ্ছে না। যার ফলে নতুন করে ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরির কাজ শুরু করা হয়।

এই কার্যক্রমটি পরিচালনা করছে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমি (নেপ)। শিক্ষার্থীদের পাঠ গ্রহণের সক্ষমতা তৈরিতে এ সিলেবাসটি তৈরি করা হচ্ছে।নেপ সূত্র জানিয়েছে, আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার চিন্তাভাবনা করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

নির্ধারিত সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে নেপের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের পাঠকার্যক্রম কার্যকর করা হবে এবং শিক্ষার্থীদের পরবর্তী ক্লাসে উর্ত্তীন্ন করা হবে। আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব না হলে প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তাদের নিজস্ব পদ্ধতিতে পঞ্চম শ্রেণিসহ সব ক্লাসের সনদ বিতরণ করবে।

এ প্রসঙ্গে নেপ মহাপরিচালক মো. শাহ আলম সম্প্রতি গণমাধ্যমকে জানান, করো’নার মধ্যে প্রাথমিকের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করার কাজ আম'রা আগেই শুরু করেছিলাম। তবে নতুন করে কয়েক দফায় ছুটি বাড়ায় এখন আম'রা ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরির কাজ শুরু করেছি। এখানে বিশেষজ্ঞ লোকজনরা কাজ করছে। আগামী সপ্তাহে নতুন সিলেবাসটি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো হবে।

নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার প্রসঙ্গে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন সম্প্রতি গণমাধ্যমকে বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেয়ার বিষয়ে এখনো সুস্পষ্ট কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে সবকিছু নির্ভর করছে করো’না পরিস্থিতির ওপর।

আম'রা ৩০ দিনের ও ১৫ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তৈরি করে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হবে শিক্ষার্থীদের সেটি পড়িয়ে পরবর্তী ক্লাসে তোলা হবে।

Advertisement
Advertisement

Check Also

মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেলেন যে স্কুলের ২২ শিক্ষার্থী

Advertisement Advertisement কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী এসভি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পাস করা ২২ কৃতী শিক্ষার্থী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!