কা’রাগা’রে নেয়া পর্যন্ত ‘মা’তাল’ ছিলেন ইরফান সেলিম

রাজ’ধানীর চকবাজারে হাজী সেলিমের রাজকী’য় ভবন ‘চান সরদার দাদা বাড়ি থেকে গ্রে’ফতার হন হাজী সেলিমের আ’লোচিত পুত্র ইরফান সেলিম। ওই সময় তিনি ম’দ্যপ ছিলেন। র‌্যা’­ব সূত্র জানায়, সোমবার দুপুরে গ্রে’ফতারের সময় ইরফান ম’দ্যপ অবস্থায় ছিল।

রাত সাড়ে ১২টায় র‌্যা’­ব-৩ থেকে কা’রা’গারে পাঠানোর আগ পর্যন্ত নে’শাগ্রস্থ ছিলেন তিনি। রবিবার রাত থেকে অ’ভিযানের আগ পর্যন্ত পান করেছেন আড়াই বোতল বিদেশী ম’দ। স্ত্রী’র সঙ্গে অ’ভিমান করে একসঙ্গে এতো ম’দপান করেছেন বলে জানান তিনি।

র‌্যা’­বের অ’ভিযা’নকালে চকবা’জারের রাজসিক প্রাসাদ ‘চাঁন সরদার দাদা বাড়ী’র চতুর্থ তলায় অব’স্থান করছিলেন ইর’ফান। আর তার স্ত্রী’ (নোয়াখালী-৪ আস’নের এমপি এক’রাম চৌ’ধুরীর মে’য়ে) তখন ভ’বনের তৃতীয় তলায় ছিলেন।

সোমবার দুপুর সা’ড়ে ১২টায় ৯ তলা এ বা’ড়িতে অ’ভি’যানে ঢুকেন র‌্যা’­বের নির্বা’হী ম্যাজি’স্ট্রেট সারোয়ার আলমের নে’তৃত্বে র‌্যা’­বের গো’য়েন্দা ইউ’নিট, র‌্যা’­ব-৩ ও র‌্যা’­ব-১০ এর সদ’স্যরা। ওই সময় হাজী সেলি’মের ওই পু’ত্র ম’দ্য’প অব’স্থায় ছিলে’ন। তিনি গ্রে’ফতার করতে যাওয়া র‌্যা’­ব কর্ম’ক’র্তাদের স’ঙ্গে ঔ’দ্ধ’ত্য’পূর্ণ আ’চরণ করেন।

অ’ভিযানে অং’শগ্র’হণকারী এক র‌্যা’­ব কর্মক’র্তা জানান, ৪’তলার ইর’ফানের কক্ষটি ভে’তর থেকে ল’ক করা ছিল। বা’ড়ির কেয়া’রটে’কারকে স’ঙ্গে নি’য়ে সেই ‘রুমে যান অ’ভিযান’কারীরা। কেয়ার’টেকারের ডা’কে দরজা খুলেন ইরফান। এস’ময় তিনি ঢলতে ছিলেন’।

র‌্যা’­বের নির্বাহী ম্যাজি’স্ট্রেট ও কর্মক’র্তাদের দেখে ইরফান বলতে থাকেন- হু আর ইউ? অ্যাম আই এ ক্রি’মিনাল? উইল ইউ অ্যা’রেস্ট মি?। র‌্যা’­বের এ’কটি সূত্র জানায়, র‌্যা’­বের অ’ভি’যানের আগেই বা’ড়ির আশপাশের মো’ড়ে মোড়ে ইরফান সেলিমের লোক দাঁড়ানো ছিল।

র‌্যা’­বের ধারণা, ওয়াকিট’কি দিয়ে পুরো এলাকা নজরদারি করছিল। ওই বাড়ি থেকে একটি ওয়ার’লেস নেটওয়ার্ক স্টে’শন উ’দ্ধার করা হয়েছে। যেখান থেকে ৩৮টি উচ্চ ক্ষ’মতাসম্পন্ন ওয়া’কিট’কি পাওয়া গেছে। যেগুলো সাধা’রণত আইন-শৃঙ্খলা ‘বা’হি’নীর সদ’স্যরা ব্য’বহার করেন।

এ রুমের একপাশে থা’কতেন হাজী সেলিমের ছে’লে এরফান সেলিম। পাশের আরেকটি রুমে থরে থরে সাজা’নো আরও নানা ডিভাইস আর আইন-শৃ’ঙ্খলা র’ক্ষা’কারী বাহি’নীর সদ’স্যদের ব্য’বহৃত ও’য়াকিট’কি আর ড্রো’ন ক্যামে’রাসহ নানা অ’ত্যা’ধুনিক য’ন্ত্রপাতি।

এমনকি মিলেছে হ্যা’ন্ড’কাপও। তৃ’তীয় রু’মের বিছা’নার ম্যা’ট্রেস উ’ঠানোর পরই দেখা যায় গু’লিভর্তি এ’কটি বিদেশী অ’বৈধ পি’স্তল আর বিভিন্ন পরি’চয়পত্র। আছে দেশী-বিদেশী নানা ব্রা’ন্ডের মা’দকদ্রব্যও। র‌্যা’­ব কর্মক’র্তারা জানিয়েছেন, ইরফান সেলিমের ৪তলার বেডরুমে একটি ম’দের খো’লা বোতল এবং একটি ব’ক্সে আরও বেশ ক’য়েকটি বিদেশী ম’দের বোতল পাও’য়া গেছে। তা’কে ম’দ্যপ অব’স্থায় আ’ট’ক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!