যে কারনে এবার রাধাকৃষ্ণের ন্যায় বগুড়ায় প্রস্তুতি চলছে ভাগ্নে ও মামীর বিয়ের! – OnlineCityNews
Breaking News
Home / সারা দেশ / যে কারনে এবার রাধাকৃষ্ণের ন্যায় বগুড়ায় প্রস্তুতি চলছে ভাগ্নে ও মামীর বিয়ের!

যে কারনে এবার রাধাকৃষ্ণের ন্যায় বগুড়ায় প্রস্তুতি চলছে ভাগ্নে ও মামীর বিয়ের!

Advertisement

বগুড়ার শিবগঞ্জে বিয়ের দাবীতে এক সন্তানের জননী জেসমিন আক্তার (২২) ভাগ্নের বাড়িতে অ’ন’শন করছে। শুক্রবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যা থেকে ভাগ্নে সাব্বির এর বাড়িতে অ’ন’শন শুরু করেন তিনি।







জানা যায়, শিবগঞ্জ পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের লালদহ নয়াপাড়া গ্রামের মফিদুলের স্ত্রী জেসমিন একই গ্রামের সাদ্দামের ছেলে ভাগ্নে সাব্বির (২৩) এর সঙ্গে প’র’কি’য়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।







মামী ও ভাগ্নে বিভিন্ন সময় পাত্রী দেখার নাম করে বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে। প্রেমের টানে মা’মীকে নিয়ে ভাগ্নে সাব্বির গত ২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার রাত ৯টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।







এরপর ঢাকায় একটি হোটেলে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে ভাড়া নিয়ে তারা রাত্রীযাপন করে। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সাব্বির এর পিতা সাদ্দাম তার ছেলের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলে তাদের সম্পর্ক মেনে নেবে বলে জানায় এবং বাড়িতে আসতে বলে।







এর প্রেক্ষিতে মামী ও ভাগ্নে বাড়ীতে আসলে ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু সাঈদ এর সহায়তায় পৌরসভায় একটি সমঝোতা বৈঠক বসে। এবং তাদের বাবা দুজন দুজনার জিম্মায় নিয়ে যায়।







মেয়ের স্বামী মফিদুল তার স্ত্রীকে নিয়ে ঘর সংসার করবে না বলে জানিয়ে দেয়। পরবর্তীতে মামী জেসমিনকে সাব্বির মুঠোফোনে বলে, আমি তোমাকে নিয়ে ঘর সংসার বাঁধবো তুমি আমা’র বাড়ীতে এসো।







এর প্রেক্ষিতে মামী জেসমিন আজ শুক্রবার (২ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সাব্বিরের বাড়িতে চলে আসে। এ বিষয়ে জেসমিন জানান, আমি সাব্বিরকে ছাড়া বাঁচবো না তার সঙ্গে আমা’র বিয়ে না হলে আমি আ’ত্ম’হ’ত্যা’র পথ বেঁচে নিবো।







আমি ঢাকায় যাওয়ার সময় সাব্বিরকে ১ ভরী স্বর্ণালংকার ও নগদ ৮০ হাজার টাকা দিয়েছি। লালদহ গ্রামের ইলিয়াছ বলেন, মামী জেসমিন এর সাথে ভাগিনা সাব্বিরের বিবাহের প্রস্তুতি চলছে।







কাউন্সিলর আবু সাঈদ বলেন, এ বিষয়ে একটি বৈঠক হয়েছে। তবে মেয়ের পরিবার মেয়েকে তাদের জিম্মায় চাওয়ায় আমি নিয়ে যেতে বলেছি। নাম প্রকাশ্যে অ’নিচ্ছুক এক এলাকাবাসী বলেন,







স্বামী মফিদুল ট্রাক ড্রাইভার হওয়ার কারণে বাড়িতে না থাকার সুযোগে ভাগ্নে ও তার মামীর মধ্যে অ’বৈ’ধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ইতিপূর্বে একদিন অ’সা’মাজিক কার্যকলাপ করার সময় ধ’রাও খেয়েছিল। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামী-ভাগ্নের বিয়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।






Advertisement
Advertisement

Check Also

খালি হাতে ঢাকায় এসে ৯০ হাজার টাকায় শুরু, এখন বিক্রি ২৫ কোটি টাকা

Advertisement Advertisement ১২ বছর বয়সে চাঁদপুরের কচুয়া থেকে কাজের উদ্দেশ্যে ঢাকায় আসেন মো. আমান উল্লাহ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!