Breaking News
Home / সারা দেশ / যে কারনে প্রধানমন্ত্রী বললেন “আমা’র তো ৭৪ বছর বয়স, আর কতদিন?”

যে কারনে প্রধানমন্ত্রী বললেন “আমা’র তো ৭৪ বছর বয়স, আর কতদিন?”

Advertisement

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমা’দের নদীগুলোর ভাঙন হচ্ছে, ক্ষতি হচ্ছে। নদীগুলো বাঁ’চানোর জন্য ড্রেজিং দরকার। ডেল্টা প্ল্যানের এটাই লক্ষ্য, আমা’দের যতগু’লি বড় নদী এবং যা আছে, আম’রা ড্রেজিং করে নদীর নাব্যতা বজায় রেখে এই বদ্বীপটা রক্ষা করবো। আগামী দিনের নতুন প্রজন্মের জন্য কী’ভাবে এই দেশটা এগিয়ে যাবে কী’ভাবে চলবে, সেটাই এখন থেকে আম’রা প্রস্তুতি নিয়ে রাখবো বা আম’রা নির্দেশনা দিয়ে রাখবো।







তিনি বলেন, সময়ের বিবর্তনে সেটা কিন্তু সংশোধন করতে হবে, পরিবর্তন করতে হবে, পরিশোধন করতে হবে। এটা নিয়ম। সেটাও আম’রা জানি। কিন্তু তারপরও একটা ফ্রেমওয়ার্ক, ধারণাপত্র অথবা একটা দিকনির্দেশনা যদি সামনে থাকে তাহলে যেকোনো কাজ খুব সহ’জে যারাই ভবিষ্যতে আসুক তারাই করতে পারবে। কারণ আমা’দের তো বয়স হয়ে গেছে। আমা’র তো ৭৪ বছর বয়স। কাজেই সেটাও মা’থায় রাখতে হবে। আর কতদিন!







আজ বুধবার আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সভা’র সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। সভায় করো’না পরিস্থিতিতে সরকারের নগদ অর্থ প্রণোদনা ও সাহায্যের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।







প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনো শ্রেণি যেন বাদ না যায় সেদিকে লক্ষ্য রেখেই কাজ করেছি। রিকশার পিছনে যারা পেইন্টিং করে তাদের খোঁজ করে সাহায্য দেওয়া হয়েছে। যারা যন্ত্রসংগীতের সঙ্গে যু’ক্ত, যাদের স্থায়ী চাকরি নেই তাদেরও আম’রা সাহায্য করেছি। বিভিন্নভাবে আম’রা সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। কাজ করে যাচ্ছি।







তিনি বলেন, করো’না মোকাবিলা করে আম’রা কী’ভাবে আমা’দের দেশের অর্থনৈতিক গতিটা অব্যাহত রাখতে পারি সে চেষ্টা করে যাচ্ছি। সবচেয়ে বড় কথা হলো যারা সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত তাদের পাশে দাঁড়ানো। বাংলাদেশের এখন অবস্থা যে শুধু করো’নার জন্য সর্বনাশ হচ্ছে সেটা তো না, প্রাকৃতিক দু’র্যোগও আমা’দের মোকাবিলা করতে হচ্ছে। অ’ত্যন্ত সমযোপযোগী পদক্ষেপ নিয়ে আম’রা সেগু’লি মোকাবিলা করতে পেরেছি।







বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, আশ’ঙ্কা ছিল বিশাল একটা ব’ন্যা বা দীর্ঘস্থায়ী একটা ব’ন্যা দেখা দিতে পারে। এখনও পানি আছে কিছু কিছু নদীতে। কিছু ভাঙনও হচ্ছে। এবার নদী ভাঙনটা ব্যাপক হয়েছে। নদী ভাঙনে কিছু কিছু এলাকা ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক মানুষ একেবারে ঘর-বাড়িহারা হয়েছে। তারপরও এই অবস্থা মোকাবিলায় আম’রা যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছি।







শেখ হাসিনা বলেন, অর্থনৈতিকভাবে আম’রা একটা মোটামুটি ভালো অবস্থানে আছি। বাজেটের ঘাটতি এবার আম’রা ৬ শতাংশ ধরেছিলাম। এখানে আমা’র সিদ্ধান্ত ছিল দরকার হলে ১০ শতাংশ ধরবো। কিন্তু সেটা আমা’দের লাগেনি। কাজেই তার মধ্যে রেখেই আম’রা আমা’দের অর্থনীতির চাকা’টা সচল রাখতে পেরেছি। কারণ রাজনৈতিক দল হিসেবে আওয়ামী লীগ একমাত্র রাজনৈতিক দল যার একটা ইকোনমিক পলিসি আছে, সেটা মা’থায় রেখেই আম’রা কিন্তু কাজ করে যাই।






Advertisement
Advertisement

Check Also

হিজড়াদের কখনোই তিনটি জিনিস দেবেন না, দিলে আপনার সর্বনাশ হবেই

Advertisement শহরের ব্যাস্ত সময় রাস্তা ঘাটে, বাসে ট্রেনে, ভিড়ের মাঝে তাদের দেখা যায়। তারা রঙিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!