পড়ালেখায় অমনোযোগী, ছাত্রকে হা’ত-পা বেঁ’ধে যা করলেন শিক্ষকের, সেই দৃশ্য দেখে মিডিয়া তোলপার – OnlineCityNews
Breaking News
Home / সারা দেশ / পড়ালেখায় অমনোযোগী, ছাত্রকে হা’ত-পা বেঁ’ধে যা করলেন শিক্ষকের, সেই দৃশ্য দেখে মিডিয়া তোলপার

পড়ালেখায় অমনোযোগী, ছাত্রকে হা’ত-পা বেঁ’ধে যা করলেন শিক্ষকের, সেই দৃশ্য দেখে মিডিয়া তোলপার

Advertisement
Advertisement

ছাত্র রাকিবুল ইস’লাম পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়ায় তার হা’ত-পা বেঁ’ধে মা’র’ধর করেছেন মাদরাসার শিক্ষক ইব্রাহীম। সা’ভারের আশু’লিয়া মধুপু’র এলাকায় জাবালে’ নূর মাদ’রাসায় এ ঘটনা ঘটে। রাকিবুলকে মা’রধ’রের পর পা’লিয়ে যেতে সহযো’গিতা করায় ওই মাদ’রাসা’র আরেক শিক্ষার্থী মাহ’ফুজুর রহমা’নকেও হাত-পা বেঁ’ধে মা’রধ’র করেন ওই শিক্ষক।







বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকার সি’নিয়র চিফ জুডি’শিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট রাজীব আহসানের আদালতে শিক্ষক ই’ব্রাহীম ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বী’কারোক্তি’মূলক জবা’নবন্দি দেন। এ’রপর তাকে কা’রাগারে পাঠা’নোর আদেশ দেন আ’দালত। জবা’নব’ন্দিতে এসব কথা বলেন শিক্ষ’ক ইব্রা’হীম।







জ’বানব’ন্দিতে মাদ’রাসার শিক্ষ’ক ইব্রা’হীম ব’লেন, ‘আমি জাবা’লে নূর মাদ’রাসার শিক্ষক। মাদরাসার ছাত্র রা’কিবুল ইস’লাম দু’ষ্টু প্রকৃতির ছিল। সে ইতো’মধ্যে মাদ’রাসা থেকে দুবার পা’লিয়ে গেছে। সে পড়ালেখায় অম’নোযোগী ও দুষ্টুমি করতো। এর জে’র হিসেবে ১১ সেপ্টেম্বর তাকে হাত-পা বেঁ’ধে মা’রধ’র করি।







তাকে মা’রার পর মাহ’ফুজুর রহমান নামে আরে’ক ছাত্র পালিয়ে যেতে সহ’যোগিতা করে। তখন তাকেও হাত-পা বেঁ’ধে মা’র’ধর করি। ১২ সেপ্টেম্বর রাকি’বুলের ফুফু তাকে মা’দ’রাসা থেকে নিয়ে যান। ১৪ সেপ্টে’ম্বর তাদের মা’রধ’রের বিষয়’টি এলাকার লো’কজন জেনে যায়। তখন তারা এসে আ’মাকে গ’ণধো’লাই দেয়।







এর’পর আমাকে হাসপা’তালে ভর্তি করা হয়। ১৫ সে’প্টেম্বর হাসপাতা’ল থেকে পু’লিশ আ’মাকে গ্রে’ফতার করেন।’ স্বী’কারো’ক্তিমূ’লক জবা’নবন্দি দেয়ার বিষ’য়টি জা’গো নিউজকে নি’শ্চিত করেন ঢাকার চিফ জু’ডিশিয়াল ম্যা’জিস্ট্রেট আদা’লতের অতি’রিক্ত পাব’লিক প্রসি’কিউটর আ’নোয়ার ক’বির বাবু’ল।







তিনি বলে’ন, ‘আ’জ ইব্রা’হীমকে আদালতে হাজি’র করে আশু’লিয়া থা’না পু’লিশ। সে স্বে’চ্ছায় জবানব’ন্দি দিতে স’ম্মত হওয়ায় তা রে’কর্ড করার আবে’দন করেন মাম’লার ত’দন্তকা’রী কর্মক’র্তা। আবেদনের পরি’প্রেক্ষি’তে বিচার’ক তার জবান’ব’ন্দি রে’কর্ড করেন। এরপর তাকে কা’রাগারে পা’ঠানোর আ’দেশ দেন।’







জা’না গেছে, গত শু’ক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) তুচ্ছ ঘট’নাকে কে’ন্দ্র করে আশুলিয়ার শ্রীপুরের মধুপুর জাবালে নূর মাদরাসার ছাত্র রাকিবুল ইস’লাম (১৩) এবং মাহফুজুর রহমান (১৩) নামের দুই ছাত্রকে অন্য শিক্ষা’র্থীদের সা’মনে বেত দিয়ে পি’টিয়ে গুরু’তর আ’হত করেন মা’দরাসা’র শিক্ষ’ক ইব্রাহীম।







মা’রধ’রের ঘটনায় মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আশু’লিয়া থা’নায় একটি মা’মলা করেন রাকিবুলের বাবা এমদাদুল ই’স’লাম। সামাজিক যো’গাযোগ মাধ্যমে ভাই’রাল হওয়া সিসিটিভির একটি ভি’ডিওতে দেখা যায়, মাদরাসার একটি কক্ষে অ’ভিযুক্ত শি’ক্ষক ইব্রাহি’ম হাতে বেত নিয়ে শিশু শিক্ষা’র্থী রাকিবুল ইস’লামকে পে’টাচ্ছে’ন।







একপর্যায়ে শিশু রাকিবুল ওই শি’ক্ষকের পা ধরলেও তি’নি ক্রমাগত পেটাতে থাকেন। একই সময় পাশে’ই মাহফুজ নামের অ’পর শিশুছা’ত্রকে মা’রধ’রের পর দড়ি দিয়ে হা’ত-পা বাঁ’ধা অবস্থায় মে’জেতে পড়ে থাকতে দে’খা যায়।






Advertisement
Advertisement

Check Also

ডাক্তার হইছেন, বুঝেন না, সব বলতে হইবো

Advertisement Advertisement সময় রাত ২টা ৪৫ মিনিট। ডিউটি ডাক্তার সবে মাত্র বিশ্রাম নেয়ার জন্য ঘুম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!