সুশান্ত মামলায় নতুন মোড়, অবশেষে এতদিন পর যে অভিযোগে গ্রে’ফতার রিয়া – OnlineCityNews
Breaking News
Home / ভারত / সুশান্ত মামলায় নতুন মোড়, অবশেষে এতদিন পর যে অভিযোগে গ্রে’ফতার রিয়া

সুশান্ত মামলায় নতুন মোড়, অবশেষে এতদিন পর যে অভিযোগে গ্রে’ফতার রিয়া

Advertisement
Advertisement

সুশান্ত মা’মলায় নতুন মোড়। মা’দক কাণ্ডে গ্রে’ফতার হলেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। রবিবার থেকে রিয়াকে জেরা শুরু করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। রবি, সোম পর পর দু’দিন জেরার পর, আজ মঙ্গলবারও ডা’কা হয় রিয়াকে। কিছু ক্ষণ জে’রার পরই দুপুরে রিয়াকে গ্রে’ফতার করে এনসিবি। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ তাঁর ডাক্তারি পরী’ক্ষা করা হয়।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ভি’ডিয়ো কন’ফারেন্সের মাধ্য’মে আদালতে পেশ করা হবে রিয়াকে। মা’দক যোগ নিয়ে রবিবার থেকে রিয়াকে টানা জে’রা করছিল এনসিবি। রবিবার এক টানা আট ঘণ্টা জে’রা করা হয় তাঁকে। ভাই শৌভি’কের মুখোমুখি বসিয়ে সোমবার জে’রা করা হয় ছ’ঘণ্টা। বার বার প্রশ্নের মুখে পড়ে গতকাল এনসিবির সামনে রিয়া বলেন, ‘‘আমি যা করেছি, তা সবই সুশান্তের জন্য।’’

তার পরে এ দিন ফে’র রিয়াকে জে’রার জন্য এনসিবির সদর দফ’তরে ডা’কা হয়। সেখানে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা জে’রার পর দুপুরে গ্রে’ফতার করা হয় তাঁকে। এন’সিবির ডে’পুটি ডি’রেক্টর কেপিএস মালহোত্র এ দিন সংবা’দমাধ্যমে বলেন, ‘‘রিয়া’কে গ্রে’ফতার করে হেফা’জতে নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।’’

তবে এমন কিছু যে একটা ঘট’তে পারে, আগে থে’কেই তা আঁচ করতে পেরেছিলেন রিয়ার আই’নজীবী স’তীশ মানে’শি’ন্ডে। রিয়া গ্রে’ফতার হওয়ার জন্য প্রস্তু’ত বলে দিন কয়েক আগেই বিবৃ’তি দেন তিনি। মেয়ে’র বিরু’দ্ধে মিডিয়া ট্রায়া’ল নিয়ে সরব হন রিয়ার বাবা ইন্দ্র’জিৎ চক্রবর্তী।

তিনি বলেন, ‘‘আমা’র ছেলেকে গ্রে’ফতার করার জন্য ভার’তকে অভিনন্দন। আমি নি’শ্চিত, এর পরেই আমা’র মেয়ের পালা।’’ এ দিন তাঁদের সেই আশ’ঙ্কাই সত্যি হল। গত ১৪ জুন মুম্বইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের ঝু’লন্ত দে’হ উ’দ্ধার হয়। শুরুতে মুম্বই পু’লিশের হাতেই ত’দন্ত’ভার ছিল।

পরে সুপ্রিম কো’র্টের নির্দেশে তা কে’ন্দ্রীয় গো’য়েন্দা সংস্থা সিবি’আই’য়ের হাতে ওঠে। সেই মাম’লায় রিয়ার হোয়া’টসঅ্যাপ চ্যাট থেকে মাদ’কযো’গের কথা উঠে এলে, আ’লাদা করে ত’দন্ত শুরু করে এনসিবি। তা নিয়ে গত সপ্তাহে দ’ফায় দফায় জে’রার পর শুক্র’বার রিয়ার ভা’ই শৌভিক ও সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার স্যামু’য়েল মিরান্ডাকে গ্রে’ফতার করা হয়।

গ্রেফ’তার হন সুশান্তের হাউজ হেল্প দীপেশও। ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হেফা’জতে রয়েছেন তাঁরা। এর আগেও রি’য়ার মা’দক প্রসঙ্গে জয়া সাহা এবং সি’দ্ধার্থ পি’ঠানির সঙ্গে হোয়াটস’অ্যাপ চ্যাটে উঠে এসেছে মা’দক যো’গের কথা। সেখানে দেখা যায় তাঁর বন্ধু জয়া রিয়া’কে লেখেন, “চার ফোঁটা জলে বা চায়ে মি’শিয়ে ওকে সিপ করাও… ৩০-৪০ মিনিট পরে মা’তাল হবে।”

তা ছাড়াও অন্য একটি চ্যাটে দেখা যায় সুশান্তের ফ্ল্যাটমেট সিদ্ধার্থের থেকে রিয়া বাড়িতে মা’দকের জোগান ও গুণমান সম্প’র্কে জানতে চায়। প্রথমে অস্বী’কার করলেও সোম’বার রিয়া এনসি’বির কাছে সুশান্তের জন্য মা’দক কেনার কথা স্বী’কার করেন। রিয়ার বয়ান অনু’যায়ী সুশা’ন্তের ক’র্মচারী দী’পেশকে দিয়ে তিনি মা’দক আনি’য়েছেন ঠিকই,

কিন্তু তিনি নিজে’ই কোনও দিন গাঁ’জা-চরস বা অন্য কোনও ধর’নের মাদক নেননি। অভি’নেত্রী জানান, ‘কে’দারনাথ’-এর শু’টিং-এর সময় থেকেই সুশান্ত মা’দকা’সক্ত হয়ে পড়েন। রবিবার জিজ্ঞা’সাবাদের জন্য এনসিবির দফ’তরে যাওয়ার সময় রী’তিমতো ‘মব’ড’ হতে হয় রিয়া’কে।

তাঁর হয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলে’ছিলেন, মেয়ে বলেই কি দোষ প্রমাণ হওয়ার আগে তাঁকে এত হেন’স্থা করা হচ্ছে। আজ সকালেই পরো’ক্ষ বার্তা দেও’য়ার জন্য সেই দফ’তরের সামনে তাঁকে দেখা যায় ‘স্ম্যাশ দ্য প্যাট্রি’য়ারকি’ লেখা টি-শার্টে। পুরু’ষতান্ত্রিক সমাজে’র গোঁড়া’মিকে ভেঙে দিতে চাওয়ার বার্তা। তাঁর কিছু’ক্ষণের মধ্যেই মা’দকযো’গে তাঁকে হেফা’জতে নিল এনসি’বি। তাঁর করো’না টে’স্ট হবে। মা’দক টেস্টও করা হবে।

Advertisement
Advertisement

Check Also

এক ঘরে ঝুলছে বাবা, মা, ইঞ্জিনিয়ার ছেলের দেহ, চাঞ্চল্য জোকায়

Advertisement একই পরিবারের বাবা-মা এবং ছেলের ঝু’লন্ত দে’হ উ’দ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য জোকার মণ্ডলপাড়ায়। বুধবার সকালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!