সুশান্ত মা’মলায় টুইস্ট, দায় স্বীকার করার পরেও কেন NCB-কে দেওয়া বয়ান প্র’ত্যা’হার অভি’যু’ক্তদের – OnlineCityNews

সুশান্ত মা’মলায় টুইস্ট, দায় স্বীকার করার পরেও কেন NCB-কে দেওয়া বয়ান প্র’ত্যা’হার অভি’যু’ক্তদের

প্রসঙ্গত, এদের বয়ানের ওপর ভিত্তি করেই রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক ও সুশান্তের হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা ও তাঁর পরিচারক দী’পেশ সাওয়ান্তকে গ্রে’ফতার করেছে এনসিবি। শৌভিক চক্রবর্তীকে ড্রা’গস জো’গাড় করে দিত, নার’কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোকে দেওয়া এই জবা’নবন্দি এবার প্রত্যা’হার করল দুই অভি’যুক্ত।

তাদের অ’ভিযোগ, এনসিবি জে’রার সময় জো’র করে এই সব কথা বলিয়ে নিয়েছিল। প্রসঙ্গত, এদের বয়া’নের ওপর ভিত্তি করেই রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক ও সুশান্তের হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা ও তাঁর পরিচারক দীপেশ সাওয়ান্তকে গ্রে’ফতার করেছে এনসিবি।

এদিন মুম্বইয়ে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে তোলা হলে ড্রা’গ সাপ্লাই’য়ের দায় অভি’যুক্ত জৈদ ভিলাত্রা’ ও আবদে’ল বাসিত পরিহার নিজেদের জ’বানবন্দি প্রত্যা’হার করে নেয়। বর্তমানে তারা আছে এনসিবি-র হেফাজতে। ভিলাত্রা ও পরিহার দুজনকেই তিন তারিখ গ্রে’ফতার করা হয়। এরপর তা’দের এনসিবি হেফা’জতে রাখার নি’র্দেশ দেয় আদালত।

এদিন তাদের আ’ইনজীবী তারেক সৈয়দ বলেন যে শুধু জবান’বন্দি প্রত্যা’হার নয়, বেলের জন্যেও তারা আবে’দন করা হয়েছে। ড্রা’গের পরিমা’ণ খুব কম বলে এটি জা’মিনযো’গ্য বলে সৈয়দ দাবি করেন। ম্যা’জি’স্ট্রেট কো’র্টে এদিন বেলের আবেদনে আপ’ত্তি করে এনসিবি।

তারা বলে যে আরে’কটু সময় চাই ত’দন্ত করার জন্য। এ’দিন’কার মতো মাম’লা মু’লতুবি হয়ে যায়। মঙ্গলবার ফের এই মা’মলার শুনানি হবে। সুশান্ত ও রিয়া কি ড্রা’গ ব্যবহার করতেন, সেই সংক্রান্ত ত’দন্তে এই দুইজনকে গ্রে’ফতার করে এনসিবি। প্রথমে আব্বাস আলি লা’খানিকে গ্রেফ’তার করা হয় ৪৬ গ্রাম গাঁ’জা সমেত।

এরপর তার দেওয়া খবর অনুযায়ী, করণ আরোরাকে গ্রে’ফতার করা হয় ১৩ গ্রাম গাঁ’জা সহ। এরপর এদের প্রশ্ন করে নাম আসে ভি’লাত্রা ও পরিহারের। এনসিবি বলে যে জে’রায় পরিহার স্বীকার করেছে রিয়ার ভাই শৌভিকের নির্দেশে সে মারিজু’য়ানা কিনে’ছিল। এরপর সৌ’ভিকের কথায় সেটা মি’রান্ডাকে দি’য়েছিল সে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *