করোনার মধ্যেই যে সমস্ত প্রাথমিক স্কুল খোলা! – OnlineCityNews

করোনার মধ্যেই যে সমস্ত প্রাথমিক স্কুল খোলা!

মহামারী করো’নার সংক্রমণের কারণে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। তবে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজে’লার সদর ইউনিয়নের সোতাশী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে খোলা রয়েছে।

শিক্ষার্থীরা সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে এবং অধিকাংশই মাস্কবিহীন অবস্থায় বিদ্যালয়ে আসছে। ফলে ব্যাপকভাবে করো’না সংক্রামণের আশ’ঙ্কা করছে সচেতনমহল। বুধবার বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় একটি কক্ষে ১০ থেকে ১৫ জন শিক্ষার্থী ক্লাস করছে।

এছাড়া শিক্ষক মিলনায়তনও ক্লাস নিচ্ছেন একজন শিক্ষক। সে সময় অধিকাংশ শিক্ষার্থীর মুখেই মাস্ক ছিল না। ছিল না নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নাদিরা বেগম বলেন, ‘ক্লাস নেয়ার বিষয়ে ডিপিইও অর্থাৎ জে’লা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের মৌখিক নির্দেশনা আছে।

অফিস থেকে চার পাতার একটা চিঠি স্কুল কর্তৃপক্ষকে দেয়া হয়েছে, যেখানে উল্লেখ আছে প্রয়োজনে অভিজ্ঞ শিক্ষকরা পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস নিতে পারবেন।’ তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অভিভাবক জানান, ওই বিদ্যালয়ে টাকার বিনিময়ে কোচিং করানো হয়। উপজে’লা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু আহাদ বলেন, ‘এতেতো দোষের কিছু নাই। বাচ্চাদেরতো উপকারই হচ্ছে।’

সরকারি নির্দেশনা আছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সরকার স্কুলে এনে বাচ্চাদের পড়াতে বলেনি। মোবাইলে পাঠ দিতে বলেছে। বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোঁজ নিতে হবে।’ প্রসঙ্গত, দেশে সার্বিক করো’না পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

২৬ মার্চ থেকে সারা দেশে সব অফিস-আদালত আর যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা শুরু হয়। টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটির পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খুলে যানবাহন চলাচল শুরু হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধই থাকে। চলতি বছরে এইচএসসি পরীক্ষাও মহামারীর কারণে স্থগিত রাখা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তে চলতি বছর প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষাও নেয়া হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *