যে কারনে নারীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা পুরুষের চেয়ে বেশি – OnlineCityNews

যে কারনে নারীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা পুরুষের চেয়ে বেশি

এই গবেষণায় দেখা গেছে, নারীদের র’ক্তে তৈরি হওয়া টি-সেল অনেক বেশি শক্তিশালী পুরুষদের থেকে। এমনকি বয়স্ক নারীদের ক্ষেত্রেও একই রকম ঘটে। অন্যদিকে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষদের শরীরে টি-সেলগুলি দুর্বল হতে থাকে।

সম্প্রতি এক গবেষণায় বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পুরুষদের তুলনায় নারীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। কারণ, নারীদের শরীরে শক্তিশালী টি-সেল তৈরি হয়। এর থেকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়।

মা’র্কিন যু’ক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। গবেষণাটি প্রকাশিত হয় বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী ‘নেচার’ পত্রিকায়। আর এর বাস্তব চিত্রও যেন আম'রা দেখতে পাচ্ছি। গবেষকরা বলেছেন, বিশ্বজুড়ে করো’নায় মৃ'ত ব্যক্তিদের মধ্যে ৬০% পুরুষ।‌

যু’ক্তরাষ্ট্রের ইয়েল নিউ হ্যাভেন হসপিটালে ভর্তি থাকা সংক্রমিত ব্যক্তিদের লালারস এবং র’ক্তের নমুনা সংগ্রহ করে এই গবেষণা চালানো হয়েছে। এই গবেষণায় দেখা গেছে, পুরুষ এবং নারীর শরীরে ভিন্ন প্রকার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে। নারীদের র’ক্তে তৈরি হওয়া টি-সেল অনেক বেশি শক্তিশালী পুরুষদের থেকে।

এমনকি বয়স্ক নারীদের ক্ষেত্রেও একই রকম ঘটে। অন্যদিকে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষদের শরীরে টি-সেলগুলি দুর্বল হতে থাকে। শরীরে ক্ষতস্থানের মেরামতের জন্য কোষ থেকে একধরনের রাসায়নিক (প্রোটিন) নির্গত হয়, যাকে সাইটোকিন বলে। ‌মহিলাদের তুলনায় পুরুষদের শরীরে এই প্রোটিন বেশি ক্ষরিত হয় যা কিনা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর, বলছে গবেষণায়।

আর তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভিন্নপ্রকার হওয়ার জন্যেই পুরুষ এবং নারীদের চিকিৎসা পদ্ধতিতেও বদল প্রয়োজন বলে মনে করেন এই গবেষণার তত্ত্বাবধায়ক আকিকো ইওয়াসাকি। এক্ষেত্রে পুরুষদের শরীরে টিকা প্রয়োগ করে টি-সেলের ক্ষমতা বাড়ানো যেতে পারে, অন্যদিকে নারীদের ক্ষেত্রে সাইটোকিন যাতে বেশি ক্ষরিত না হয়, সেদিকে বিশেষ জোর দেওয়া প্রয়োজন।
সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

Leave a Reply

Your email address will not be published.