অবশেষে সুশান্ত মা’মলায় গ্রে’প্তার করা শুরু, যে ২জনকে গ্রে’প্তার করা হল

সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃ’ত্যুর মা’মলায় বড় পদক্ষেপ নিল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (NCB)। ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রে’প্তার করা হল রিয়া চক্রবর্তীর (Rhea Chakraborty) ভাই সৌভিক চক্রবর্তী (Showik Chakraborty) এবং হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মি’রান্ডাকে। সূ্ত্রের খবর, মা’দক চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অ’ভিযোগেই সৌভিককে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।

সুশান্ত মা’মলায় শুক্রবার সকাল থেকেই সক্রিয় ছিল এনসিবি। এদিন রিয়া চক্রবর্তী এবং স্যামুয়েল মিরান্ডার (Samual Miranda) বাড়িতে ত’ল্লাশি অ’ভিযান চালান এনসিবির আধি’কারিকরা। এরপরই সৌভিক ও স্যা’মুয়েলকে ম্যারাথন জি’জ্ঞাসাবাদ করা হয়। এর মধ্যেই মা’দক চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অ’ভিযোগে কে’ইজান ইব্রাহিম নামে একজনকে গ্রে’প্তার করে এন’সিবি।

তারপরই সৌ’ভিক ও স্যামুয়েলকে গ্রে’প্তারির কথা জা’নানো হয়।এর আগেই মুম্বই থেকে গ্রে’প্তার করা হয়েছিল আবদুল বসিত, জায়েদ ভিলাত্রাকে। দু’জনকেই ৯ সে’প্টেম্বর পর্যন্ত হেফাজতে নিয়েছে নারকো’টিক্স ক’ন্ট্রোল ব্যুরো। সূত্রের খবর, জেরার মুখে দু’জনেই সৌ’ভিক চক্রবর্তী ও মিরা’ন্ডার সঙ্গে তাদের যোগাযোগের কথা স্বী’কার করে নেয়।


এমনকী, সুশান্তের মৃ’ত্যুর ৩ দিনের মাথাতেও নাকি ওই দুজনের নি’র্দেশে ধৃতদের মধ্যে একজন ১০ গ্রাম মা’দক পৌঁছে দিয়েছিলেন কোথাও। ফোন নম্বর লো’কেশন ট্র্যা’ক করেও সেই প্র’মাণ মিলেছে। শোনা গি’য়েছে, প্রায় ৪-৫ জন মা’দক কার’বারির সঙ্গে সৌভি’কের সম্প’র্ক ছিল।

রিয়া নাকি তাঁর ভাই সৌ’ভিককে দিয়ে নিজের বা’ড়িতে সব’সময়েই যথাযথ প’রিমাণে মা’দকদ্রব্য স’ঞ্চিত রাখতেন, যাতে সু’শান্তের কোনও অসু’বিধে না হয়! এম’নকী, স্যা’মুয়েল ও সৌ’ভিক নিয়ে সু’শান্তের বাড়ির ছা’দে বসে রি’য়াকে মা’দক নিতে দেখা গি’য়েছে বলেও খবর।

এ’রই মধ্যে, কি’ছুদিন আগে এক সর্বভা’রতীয় বেসর’কারি সংবাদ’মাধ্যমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল সু’শান্ত মাম’লাকে খু’নের ঘ’টনার বদলে আ’ত্মহ’ত্যা হিসেবে দেখছে সি’বিআই। তার জেরে সিবি’আইয়ের (CBI) পক্ষ থেকে বি’বৃতি দিয়ে জানা’নো হয়, পেশা’দারভাবেই সু’শান্ত মা’মলার ত’দন্ত করা হচ্ছে। সিবি’আইয়ের পক্ষ থেকে তথ্য বাই’রে প্র’কাশ করা হ’য়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!