মান্নার স্ত্রী যা লিখে চিঠি পাঠিয়েছে জয়কে! মিডিয়া তোলপার – OnlineCityNews

মান্নার স্ত্রী যা লিখে চিঠি পাঠিয়েছে জয়কে! মিডিয়া তোলপার

অ’ভিনেতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয় কেবিন ক্রুদের নিয়ে আ’পত্তিকর প্রশ্ন করায় দু-দফা সুযোগ দিলেও জবাব না পেয়ে অবশেষে তাকে ‘অফিসিয়াল চিঠি’ পাঠালেন নায়ক মান্নার স্ত্রী’ শেলী মান্না। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অফিসিয়াল নোটিশের জবাব না পেলে আইনি ব্যবস্থা নেবেন তিনি। নিঃশর্ত ক্ষমা না চাইলে জয়ের বি’রুদ্ধে মা’মলা দায়ের করবেন বলে জানান শেলী মান্না।

শেলীর চিঠি পাওয়ার কথা স্বীকার করে জয় বলেন, ‘তাঁর চিঠি পেয়েছি। মান্না ভাইয়ের স্ত্রী’ আমা’র কাছে অনেক শ্রদ্ধার এক মানুষ। তাঁকে আমি সম্মান করি, শুদ্ধা করি। কিন্তু তাঁর সাম্প্রতিক কর্মকা’ণ্ডে তাঁর ওপর থেকে আমা’র শ্রদ্ধা হারিয়ে যাচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘শেলী ভাবি জ্ঞানী মানুষ। আম’রা তাঁকে বাড়তি জ্ঞান দিতে চাই না।

আমা’র ধারণা, তাঁকে জ্ঞান দেওয়ার অনেক লোক আছেন। আমি শুধু বলতে চাই, আপনি অযথাই বিষয়টিকে টেনে নিয়ে যাচ্ছেন। আপনার থামা উচিত।’ সম্প্রতি ‘জীবনের গল্প’ একটি টিভি চ্যানেলের লাইভ অনুষ্ঠানে অ’তিথি হয়ে এসেছিলেন বিমানের সাবেক ক্যাপ্টেন মোশতাক।

সেই অনুষ্ঠানে উপস্থাপক ছিলেন জয়। স্বাভাবিক নিয়মেই অ্যাভিয়েশন নিয়ে তাকে অনেক প্রশ্ন করেছেন তিনি। কিন্তু অ’প্রাসঙ্গিকভাবে বিমানের কেবিন ক্রুদের সঙ্গে ক্যাপ্টেনদের প্রণয়ঘটিত ব্যাপার থেকে শুরু করে বিদেশ থেকে জিনিসপত্র দেশে এনে বিক্রি করার মতো বেশকিছু সম্মানহানীকর প্রশ্ন করেছেন জয়।

অনুষ্ঠানে বিমানের কেবিন ক্রুদের নিয়ে আ’পত্তিকর প্রশ্ন করায় জয়ের ওপর শেলী ক্ষুব্ধ হন। আর এই সম্প্রদায়কে আ’পত্তিকর প্রশ্নের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কাছে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করার কারণে নোটিশ প্রদান করেন তিনি। চিঠিতে কী’ লেখা হয়েছে, জানতে চাইলে জয় বলেন, ‘তিনি আমা’র বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ করে চ্যানেলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন।

আমাকে ছোট করে সেই চিঠি লেখা হয়েছে। অ’ত্যন্ত অশালীন সেই চিঠির ভাষা। আমি বিব্রত। নির্মাতা, অ’ভিনেতা ও উপস্থাপক হিসেবে বিনোদন অঙ্গনে আমা’র ক্যারিয়ার আছে। আমাকে এতটা অবজ্ঞা করে চিঠি দিতে তিনি পারেন না। সবার একটা পারসোনালিটি আছে। আম’রা শোয়ের বাইরে কিছু করিনি। তিনি যদি আমাকে ফোন করে কিছু বলতেন, তাহলে আমি দুঃখ প্রকাশ করতাম।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *