নারিকেল গাছের মাথায় উঠে যেভাবে মা’রা গেলেন কৃষক – OnlineCityNews

নারিকেল গাছের মাথায় উঠে যেভাবে মা’রা গেলেন কৃষক

যশোরের অভয়নগরে নারিকেল গাছের মাথা থেকে রহমত গাজী (৬৫) নামে এক কৃষকের ম’রদে’হ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজে’লার ভাঙ্গাগেট লক্ষ্মীপুর গ্রামের নিজ বাড়ির একটি নারিকেল গাছ থেকে তার ম’রদে’হ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

রহমত গাজী লক্ষ্মীপুর গ্রামের মৃ'ত তোরাপ গাজীর ছেলে। তিনি কৃষি কাজের পাশাপাশি নারিকেল পাড়ার কাজ করতেন।স্থানীয়রা জানান, দুপুরের দিকে প্রায় ৬০ ফুট উচ্চতার নারিকেল গাছের মাথায় উঠে রহমত গাজী অচেতন অবস্থায় বসে ছিলেন। শতশত গ্রামবাসী গাছের চারপাশে দাঁড়িয়ে চিৎকার করে রহমত গাজীকে ডাকলেও তিনি কোনো উত্তর দিচ্ছিলেন না।

রহমত গাজীর স্ত্রী রিজিয়া বেগম জানান, দুপুর ১২টার দিকে তার স্বামী বাড়ির সামনের একটি নারিকেল গাছে ওঠেন। গাছের মাথায় ওঠার পর দুটি নারিকেল নিচে ফেলেন। প্রায় আধা ঘণ্টা পর দেখতে পান তার স্বামী গাছের মাথায় বসে আছেন। অনেক ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে তিনি প্রতিবেশীদের খবর দেন।

পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অ’ভিযান শুরু করে। প্রায় ৪০ মিনিটের চেষ্টায় গাছের মাথা থেকে বৃদ্ধকে উদ্ধার করে নিচে নামাতে সক্ষম হন তারা। উদ্ধার দলের প্রধান নওয়াপাড়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার খাঁন এহসান উল আলম বলেন, খবর পাওয়া মাত্র আম'রা ঘটনাস্থলে চলে আসি।

দলের সদস্যদের সহযোগিতায় প্রায় ৬০ ফুট উচ্চতার নারিকেল গাছের মাথা থেকে অচেতন ও অক্ষত অবস্থায় বৃদ্ধকে উদ্ধার করে দ্রুত উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। অভয়নগর উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাফিজা নার্গিস জানান, নারিকেল গাছ থেকে উদ্ধার করা ব্যক্তি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছেন। হাসপাতা’লে পৌঁছানোর আগে তিনি মা’রা গিয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *