অবশেষে জানাগেল কেন ভেঙেছিল অঙ্কিতা-সুশান্তের ‘পবিত্র রিস্তা’? – OnlineCityNews

অবশেষে জানাগেল কেন ভেঙেছিল অঙ্কিতা-সুশান্তের ‘পবিত্র রিস্তা’?

সুশান্তের চোখে সামনে থেকে সরতে দিতে চাইতেন না অঙ্কিতা৷ মিনিটে মিনিটে সুশান্তকে ফোন বা মেসেজ করতেন। কীভাবে সুশান্ত সিং রাজপুত মা’রা গিয়েছিলেন তা নিয়ে চলছে জোরকদমে সি’বিআই ত’দন্ত । টেলিভিশন থেকে বো’লউড সফর করা সুশান্ত সিং রাজপুতের জী’বনে অনেক মেয়ের সঙ্গ পেয়েছেন, কিন্তু যাঁর সঙ্গে ৬ বছর তাঁর সম্পর্ক ছিল, তিনি হলেন অঙ্কিতা৷

তাদের পরিবার উভয়ই তাদের সম্পর্ককে নিয়ে খুশি ছিলেন, দুজনেই বিয়ে করতে চেয়েছিলেন, তবে হঠাৎ এমন কিছু ঘটেছিল যার জেরে তাঁরা এই ৬ বছরের সম্পর্ক ভেঙে দিয়েছিলেন। সুশান্ত সিং রাজপুত এবং অ’ঙ্কিতা লো’খন্ডের দেখা হয় ‘প’বিত্র রি’স্তার’ সেটে।

দু’জনেই সেটে ব’ন্ধু হয়ে ওঠেন এবং দু’জনেই একে অ’পরের প্রে’মের প্র’স্তাব দিয়েছিলেন যা থেকে বন্ধু’ত্বের সম্প’র্কের নতুন নাম দিয়েছিলেন তাঁরা।এমন এক সময় ছিল যখন এই জু’টিকে টিভির সে’রা জুটি এবং লা’ভ বা’র্ডাস হিসেবে মনে করতেন সবাই৷ প্রায় বিয়ে পর্যন্ত পৌঁছেছিল তাঁদের সম্পর্ক।

সুশান্ত ও অঙ্কিতা একটি ডান্স রিয়েলিটি শো ঝালক দিখলা জাতেও অংশ নিয়েছিলেন। এই মঞ্চে সুশান্ত সিং রাজপুত মাধুরী দীক্ষিত, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং মালাইকা অরোরার সামনে অঙ্কিতাকে প্রোপোজ করেছিলেন।অঙ্কিতাকে প্রোপোজ করার সময় সুশান্ত সিং বলেছিলেন, ‘এত দিন খোলামেলাভাবে বলতে পারিনি, তবে আজকে বলছি।

তুমি এত এত সুন্দর যে সাত জন্ম তোমার সঙ্গে থাকতে চাই৷ ” ২০১৬ সালে বিয়ে করার কথা ছিল তাঁদের, কিন্তু সেই বছরই তাঁদের সম্পর্ক সম্পূর্ণরূপে ভেঙে যায়। যার সঙ্গে ৭ জন্ম থাকতে চেয়ে’ছিলেন, তাঁর সঙ্গে ৬ বছরের মধ্যেই কেন শেষ হল স’ম্পর্ক? সুশান্ত এবং অঙ্কিতা এই নিয়ে কখনও কথা বলেনি।

অঙ্কিতা সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বেশ ইতিবাচক ছিলেন। শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স ছবির সময় পরিনীতি চোপড়ার সঙ্গে সুশান্তের অন স্ক্রিন চুমু খাওয়া নিয়ে আপত্তি ছিল তাঁর৷ এমনকী তিনি স্টুডিও ক্যান্টিনে অভিনেতাকে চড়ও মা’রেন। তবে, সুশান্ত তাঁকে সব কিছু বুঝিয়ে বলাতে দুজনের মধ্যে ভুল বোঝা শেষ হয়।

অঙ্কিতা জানত যে সুশান্ত তাঁকে খুব ভালবাসেন। তিনি কোনওভাবেই তাঁকে প্রতারণা করছে না। সুশান্ত একটি সাক্ষাত্কারের সময় বলেছিলেন যে অঙ্কিতা তাঁর জীবনে এসেছিলেন বলে তিনি নিজেকে ধন্য মনে করেন। ৬ বছর ধরে তাঁর জীবনে একটি মাত্র মেয়ে ছিলেন। এবং সুশান্ত এও বলেন যে, অঙ্কিতা খুশি থাকলে তিনিও খুশি।

তবে টিভির কাজ ছেড়ে যাওয়ার পর থেকেই সুশান্তকে নিয়ে অঙ্কিতার মনের ইনসিকিউরিটি শুরু হয়। সুশান্ত তার অনুভূতি সম্পর্কে সর্বদা স্বচ্ছ ছিলেন এবং অঙ্কিতা জানতেন যে, সে তাঁকে খুব ভালবাসে। জানা যায়, এরপর সুশান্ত যখন তাঁর কাছে থাকতেন না তখনই অঙ্কিতা তাঁকে ফোন করতেন বা টেক্সট করতেন।

প্রথমে সুশান্ত এই বিষয়টি খুব ধৈর্য্যের সঙ্গে মেনে নেন। তিনি অঙ্কিতাতে বোঝাতেন যে সব সময় কাছাকাছি থাকা সম্ভব নয়৷ অঙ্কিতাও এটি বোঝার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু তিনি নিজেকে সামলাতে পারতেন না। বারবার এমন চলার পর, সুশান্ত অন্যরকম প্রতিক্রিয়া দেওয়া শুরু করেন। তিনি প্রতিদিন নিজেকে প্রমাণ করতে চাননি।

তিনি অঙ্কিতকে বলেছিলেন যে, অন্য কারও সঙ্গে তিনি ডেটিং বা ফ্লার্ট করছেন না৷ তবে অঙ্কিতার এমন মনোভাবে ক্লান্ত হয়ে পড়েন সুশান্ত, আস্তে আস্তে তাঁদের সম্পর্ক ভেঙে যায়।অঙ্কিতা লোখন্ডের সঙ্গে ব্রেকআপের পরে সুশান্ত সিং রাজপুত খুবই ভেঙে পড়েন। তখন তিনি একটি গানের রিয়েলিটি শোতে ছবির প্রচার করতে এসেছিলেন। যেখানে এক প্রতিযোগীর গান শুনে তিনি খুবই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন। কাঁদছিলেন পর্যন্ত৷ এই সম্পর্ক ভাঙার পর থেকেই সুশান্ত খুবই দুঃ’খী ছিলেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *