সুশান্তের মৃ’ত্যুতে গ্রে’প্তার করা হতে পারে যাদেরকে বলছেন সুশান্তের বাবার আই’নজীবী – OnlineCityNews

সুশান্তের মৃ’ত্যুতে গ্রে’প্তার করা হতে পারে যাদেরকে বলছেন সুশান্তের বাবার আই’নজীবী

১৪ জুন থেকে ২৪ আগস্ট। প্রতিদিনই সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) নাম থাকে খবরের শিরোনামে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যেন আরও জ’টিল হচ্ছে রহ’স্য। রোজই কিছু না কিছু খবর প্রকাশ্যে আসছে। এবার শোনা যাচ্ছে সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে (Rhea Chakraborty) গ্রে’প্তা’রের জ’ল্পনা।

সূত্রের খবর, রিয়াকে সমন পাঠাতে চলেছেন সিবি’আই’য়ের (C’BI) আধিকারিকরা। তাঁকে গ্রে’প্তারও করা হতে পারে। এই প্রসঙ্গে মুখ খুল’লেন সুশা’ন্ত সিং রাজপুতের বাবা কে কে সিংয়ের আইনজীবী বিকাশ সিং (Vikas Singh)। রি’য়ার গ্রে’প্তা’রির জ’ল্প’না একেবারে উড়িয়ে দেননি তিনি।

সং’বাদ’মাধ্য’মের প্রশ্নের উত্তরে বি’কাশ সিং জানান, সব’দিক ‘বি’চার-বিবেচ’না করে তা’রপর রিয়াকে সমন পাঠাবে সি’বিআই। রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। রিয়ার প্রশ্নের উত্তরে যদি সিবি’আই আধি’কারিকরা স’ন্তুষ্ট না হন, তাহ’লে তাঁকে গ্রে’প্তা’র করা হতেই পারে। সি’বিআ’ইয়ের ত’দন্ত প্র’ক্রিয়া নিয়ে যে তিনি এবং সুশান্তের পরিবার স’ন্তুষ্ট সে’ক’থাও জা’নান বি’কাশ সিং।

য’দিও রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী দাবি করেছেন, তাঁরা এখনও পর্যন্ত কোনও সমন পাননি। এরই মধ্যে বি’জেপি নেতা সুব্র’হ্ম’ণ্যম স্বা’মী (Subramanian Swamy) টুইটে অভি’যোগ করেছেন, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর ঘট’নায় দু’বাইয়ের মা’দক ব্যব’সায়ীর যোগ রয়েছে।

টুই’টে তিনি প্রশ্ন তোলেন, “সুশান্তের খু’ন হওয়ার দিন দুবা’ইয়ের ড্রা’গ ব্যব’সায়ী আ’য়েশ খান অভি’নেতার সঙ্গে দেখা ক’রেছিলেন কেন?’ এই প্র’সঙ্গে তিনি উ’দাহরণ হিসেবে সু’নন্দা পু’ষ্কর ও শ্রীদে’বীর মৃ’ত্যুর ঘট’নার কথাও উ’ল্লেখ করে’ন স্বামী। লেখেন, “সুন’ন্দার মৃ’ত্যুর পরও সত্যি ঘট’নার উল্লে’খ ছিল না ময়’নাত’দন্তে।

তাঁ’র পাক’স্থলীতে কিছু এক’টা পাওয়া গিয়ে’ছিল, যার সঠিক তথ্য AI’IMS-এর তর’ফে দেওয়া হয়নি।”এ’দিকে সুশান্ত মাম’লায় টা’না তিন দিন ধরে তাঁর ব’ন্ধু তথা ক্রি’য়েটিভ ম্যানেজার সিদ্ধা’র্থ পিঠানি (Siddharth Pithani) এবং রাঁ’ধুনি নী’রজকে জি’জ্ঞাসা’বাদ করছেন গো’য়ে’ন্দারা। রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌ’ভিককেও জি’জ্ঞাসা’বাদ করা হয়েছে।

সোমবার আধিকারিকরা গি’য়েছিলেন কু’পার হাস’পাতালে যেখানে সুশা’ন্তের দেহের ময়’নাত’দন্ত করা হয়েছিল। ‘শোনা গি’য়েছে, যে চিকিৎসকরা ময়’নাত’দন্ত ক’রেছিলেন তাঁ’দের সঙ্গে এবং হাস’পাতালের অ’ন্যান্য ক’র্মীদের সঙ্গে কথা বলেন গো’য়েন্দা’রা। ই’তিমধ্যেই সুশান্তের ফ্ল্যা’টে গিয়ে ঘটনা পু’নর্নি’র্মাণ করে’ছিলেন গো’য়ে’ন্দারা।

এরই মধ্যে আরও কিছু চা’ঞ্চল্য’কর ত’থ্য সামনে এসেছে। সু’শান্তের জি’ম প্রশি’ক্ষক সুনী’ল শু’ক্লা এক সংবাদমা’ধ্যমে দা’বি করেছেন, রি’য়ার বাবা ই’ন্দ্রজিৎ চক্র’বর্তী এবং ‘রিয়ার ‘সু’গার ড্যা’ডি’ ম’হেশ ভাট (Mahesh Bhatt) মিলে সুশা’ন্তকে হ’ত্যা’র জা’ল বিছি’য়ে’ছেন। রি’য়ার বাবা নিয়’মিত সুশা’ন্তকে ওষুধ দিতেন।


এমন’কী ৮ জুন রি’য়া সুশা’ন্তের বাড়ি থেকে চলে যাওয়ার পরেও কেউ সুশা’ন্তকে রোজ ও’ষুধ দিতেন বলে দাবি সুনী’লের। এদিকে শো’না গিয়েছে, সুশা’ন্তের দে’হ থেকে ভি’সেরা প’রী’ক্ষার জন্য যে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল তার মাত্র ২০ শতাংশ অ’বশিষ্ট রয়েছে। বাকি ৮০ শ’তাংশই নিজে’দের ত’দ’ন্তের স্বা’র্থে ব্যব’হার করেছে মু’ম্বই ‘পু’লিশ।


আ’রেক সূ’ত্রের দাবি, মৃ’ত্যুর’ ন’দিন প’রেও সুশা’ন্তের প্রা’ক্তন ম্যা’নেজার দিশা সালিয়ানের (Disha Salian) ফোন সচল ছি’ল। জুন মাসের ৯ থেকে ১৭ তারিখ প’র্যন্ত সে’ই ফোন থে’কে একা’ধিক ইন্টা’রনেট কলও করা হয়েছে। দিশাল মৃ’ত্যু’র পরও কী’ভাবে তাঁর ফো’ন স’চল ছিল? উঠ’ছে সেই ‘প্রশ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.