এবার সুশান্তের প্রতিবেশী যে বি’স্ফো’রক তথ্য দিলেন

যত দিন যাচ্ছে, সুশান্ত মা’মলা যেন ততই জটিল হয়ে উঠেছে। প্রতি মু’হূর্তে উঠে আসা নতুন ত’থ্য সকলকে অবাক করে দিচ্ছে। ১৪ জুন, বান্দ্রার ফ্ল্যাটে মৃ’ত্যু হয় সুশান্ত সিং রাজ’পুতের। এমনটাই সকলে জানেন। তবে সুশান্তের প্রতিবেশীরা যে দাবি করেছেন তা আরও বি’স্ফো’রক।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুসারে, সুশান্তের বাড়ির আলো ১৩ তারিখ রাতেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। যে সময় বাড়ির আলো ব’ন্ধ হয়েছিল, সাধারণত সেই সময় ব’ন্ধ করা হয় না। প্রতি’বেশীর দাবি, ”১৩ তারিখ রাত ১০.৩০ থেকে ১০.৪৫ এর মধ্যে সুশান্তের ফ্ল্যাটের সমস্ত আলো ব’ন্ধ করে দেওয়া হয়।

শুধুমাত্র রা’ন্না’ঘরের আলো জ্ব’লছিল। এর আগে কোনওদিনও ওর বাড়ির আলো এত তাড়াতাড়ি ব’ন্ধ করে দিতে দেখা যায় নি। সুশান্তকে ৪ পর্যন্ত জে’গে থাকতেই দেখা যেত, তাই ওর ঘরে’র আ’লোও জ্ব’লে। আলো রাতে বন্ধ হয় না বললেই চলে। তবে ওই’দিন সমস্ত আলো ব’ন্ধ ছিল। আর ১৩ তারিখ বাড়িতে কোনও পার্টিও হয়নি।”

প্রতিবেশীর এমন দাবিতে আরও বেশি করে সুশা’ন্ত মৃ’ত্যু র’হস্যে নতুন মোড় নিল। পাশাপাশি প্রতিবেশীর এই দাবির পড়ে সিদ্ধার্থ পিঠানির ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। প্রসঙ্গত, সিদ্ধার্থ পিঠানি ও দীপেশ সর্ব’ভার’তীয় সংবাদ’মা’ধ্যমের ক্য়া’মেরার সামনে বলে’ছিলেন, বা’ড়ির ওয়া’চম্যা’নকে তিনি চা’বিওয়া’লাকে ফো’ন কর’তে বলে’ছিলেন।

অ’থচ ও’য়াচ’ম্যান জা’নান, তাঁর কা’ছে কেউ এসে কি’ছুই বলেনই নি। এদিকে শুক্রবার Zee নিউ’জকে দেওয়া সাক্ষা’ৎকারে চাবিওয়ালা জানান, তাঁকে সি’দ্ধার্থ পি’ঠানিই ফোন করে’ছিলেন। এখানেই শেষ নয়, লক ভাঙার স’ঙ্গেই তাঁকে চলে যে’তে বলা হয়। ঘ’রের দিকে তা’কা’তেও দে’ওয়া হ’য়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!