মৃ’ত্যুর আগে যে পরিকল্পনা পাকা করে ফেলেছিলেন সুশান্ত, কিন্তু আর হল না! – OnlineCityNews

মৃ’ত্যুর আগে যে পরিকল্পনা পাকা করে ফেলেছিলেন সুশান্ত, কিন্তু আর হল না!

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর কারণ হিসেবে বলিউডের একটি লবি জোর করে হতা’শা, আ’ত্মহ’ত্যার মতো শব্দ জু’ড়ে দিচ্ছে অভিনেতার জীবনের সঙ্গে- এমনই দাবি করলেন কু’শল জাভেরি। সুশান্তের ঘনিষ্ঠ বন্ধুর কথার সঙ্গে মিল পেয়েছেন ত’দন্তকারীরা।’

মৃ’ত্যুর ১৩ দিন আগেই কুশলের সঙ্গে কথা হয় সুশান্তের। তখন তিনি বলেছিলেন, আ’ধ্যাত্মিক ভাবে নিজের চেতনাকে জাগ্রত করার চেষ্টা করছেন সুশান্ত। এরপর তিনি কুশলকে লেখেন,’আমা’দের সেইসব সোনালী দিনগুলো খুবই মিস করি। তুমি কেমন আছ? আশা করি তুমি ভালো আছ আর নিজের কাজও ফাটাফাটি করছ।

খুব মিস করছি তোমায়’। সুশান্ত এই হোয়্যাটসঅ্যাপ মেসেজটি পাঠিয়েছিলেন ১ জুন। ২ জুন তার উত্তর দিয়েছিলেন কুশল।লিখেছিলেন, ‘অনেকদিন পর তোমার সাড়া পেয়ে ভালো লাগল। তুমি ভালো আর সুস্থ আছ জেনে খুশি হলাম। লড়াই সবার জীবনেই থাকে।

আমিও তার ব্য’তিক্রম নই। আশা করি তোমারও সব ঠিকঠাক চলছে’। এরপর সুশান্ত একটি লম্বা উত্তর দেন। লেখেন, আমি আধ্যাত্মিক ভাবে নিজেকে উন্নীত করার চেষ্টা করছি। যখনই আমি আধ্যাত্মিকতার নানা উপায় খুঁজছি, পড়ছি তখনই আমা’র সেই পুরনো দিনগুলোর কথা মনে পড়ে যাচ্ছে। আম'রা একসঙ্গে কত ভালো সময় কাটিয়েছি।

কত ভালো কাজ করেছি, যেগুলো গর্ব করে বলার মতো। তবে আমি বলতে চাই যে, আমা’রা এখানেই থেমে থাকব না, আবার নতুন করে কাজ শুরু করব। সবসময় একসঙ্গে থাকব। তুমি একটু সিডকে বলে দিয়ো যে আমি ওকে খুব মিস করছি। অনেক ভালোবাসা নিয়ো- এই বার্তা থেকেই স্পষ্ট যে সুশান্ত কীভাবে তাঁর পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে আবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করছিলেন।

কুশল জাভেরি আরও বলেন যে, সুশান্ত ডিপ্রেশনে ছিল এটা অসম্ভব ব্যাপার। এছাড়াও তিনি যখন সুশান্তের সঙ্গে থাকতেন তখনও সুশান্ত কোনও ওষুধ খেতেন না। এছাড়াও চার দিদির সঙ্গেই দারুণ সম্পর্ক ছিল সুশান্তের। শিবসেনা নেতার মন্তব্যেরও নিন্দা করেছেন কুশল। বন্ধুর বাবার সম্পর্কে ওই রকম বি’রূপ মন্তব্যে ক্ষু’ব্ধ তিনি।

তবে সুশান্তের চিন্তা ভাবনা এবং আশা ছিল একদম অন্যরকম। কীভাবে তিনি তাঁর প্রকল্পের রূপায়ণ করবেন তা লিখে রাখতেন তাঁর ডায়েরিতে। নিজে ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেছেন, পছন্দের বিষয় ছিল পদার্থবিদ্যা, অগাধ জ্ঞান ছিল জ্যো’তির্বি’জ্ঞানে।

সেখান থেকেই একটি প্রযোজনা সংস্থা, একটি তথ্য প্রযুক্তি স্টার্ট আপ এবং একটি গেমিং কোড তৈরির পরিকল্পনা ছিল তাঁর। এই সব কিছু নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা ছিল সুশান্তের। নিয়মিত পড়াশোনা, আলোচনা করতেন। যদি কোনও মানুষ হ’তা’শায় থাকেন তাহলে এগুলি কোনও মতেই সম্ভব হত না।

রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর পরিবারের বি’রুদ্ধে যে অ’ভিযোগ দায়ের করেছেন কে কে সিং, সেই অ’ভিযোগের ভিত্তিতেই ত’দন্ত শুরু করেছে মুম্বই পু’লিশ। আর্থিক তছরুপের ব্যাপারটিও খতিয়ে দেখছে ইডি। এছাড়াও শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউতের অ’শা’লীন মন্তব্যেও অ’সন্তুষ্ট পরিবার। তাঁকেও আইনি নোটিশ পা’ঠিয়েছে সুশান্তের পরিবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *