Breaking News
Home / বাংলা হেল্‌থ / সুশান্তের মৃত্যুর রাতের ঘটনা প্রকাশ্যে আনলেন ভগ্নিপতি, জানালেন যা হয়েছিলো সে রাতে

সুশান্তের মৃত্যুর রাতের ঘটনা প্রকাশ্যে আনলেন ভগ্নিপতি, জানালেন যা হয়েছিলো সে রাতে

Advertisement
Advertisement

সুশান্ত সিং রাজপুত মা’রা যাওয়ার দুইমাস পেরিয়ে গেছে। তিনি যে আর ফিরে আসবেন না, সেই কঠিন সত্যটা কিছু মানতে পারছেন না অ’ভিনেতার কাছের মানুষেরা। এবার সুশান্তের মৃ’ত্যুর রাতের ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন তার আমেরিকা প্রবাসী ভ’গ্নিপতি বিশাল সিং কৃতি।

সুশান্তের স’ঙ্গে নিজের ইন্সটাগ্রামে পুরোনো একটি ছবি শেয়ার করেছেন বিশাল সিং। সেখানে নানা প্রশ্ন রেখে তিনি লিখেছেন, ১৪ জুন ঠিক কি ঘটেছিলো? এমনকি কিভাবে একটি পরিবারকে তছনছ করে দেওয়া হয়েছে সেকথা জানিয়েছেন তিনি।

ওই পোস্টে বিশাল সিং কৃতি লেখেন, ‘যখন এই ঘটনাটি ঘটে, তখন আমেরিকাতে মধ্যরাত। একটার পর একটা ফোন আসছিলো। ঘু’মে আচ্ছন্ন চোখ নিয়ে তড়িঘড়ি করে ফোনটা রিসিভ করি। সবার একটাই প্রশ্ন, সুশান্তের খবরটা কি সত্য? টিভি খুলে দেখি সুশান্ত আ’ত্মহ’ত্যা করেছে!’

তিনি আরও লিখেছেন, ওই মুহুর্তটা আমা’র জন্য খুবই কঠিন ছিলো। কেননা আমি বুঝে উঠতে পারছিলাম না বি’ষয়টি আমি শ্বেতাকে কিভাবে জানাব। আমি আজও ভুলতে পারি না ভাইয়ের মৃ’ত্যুর খবরে তার প্রথম প্রতিক্রিয়া এবং তার বোন রানীর স’ঙ্গে কান্না জড়িত কন্ঠে কথোপকথন। ঐ রাতটা পুরো পরিবারকে তছনছ করে দিয়েছে। সবকিছু মুহুর্তের মধ্যে উলটপালট হয়ে যায়।

করো’না আবহের কারণে শ্বেতাকে ভারতে পাঠানো একেবারেই সম্ভব হচ্ছিলো না। অন্যদিকে আমা’র সন্তানেরা মামা’র মৃ’ত্যুতে একেবারে ভে’ঙ্গে পড়েছিলো। যোগ করে বলেন বিশাল। আমা’র এই লেখাটা শেয়ার করার কারণ হলো, দু’টি মাসে এক রাতের জন্যও দুশ্চিন্তায় চোখের পাতা এক করতে পারিনি।

লড়াই করে যাচ্ছি সবাই। দিন যত যাচ্ছে লড়াই ততই কঠিন হচ্ছে। অনুভূ’ত ি ও দুঃখগু’লো বেড়েই চলেছে, কমছে না। সেই রাতে কি হয়েছিলো, সেটা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। পাশাপাশি সুশান্তের ন্যায় বিচারের দাবিতে অ’ভিনেতার ভক্তদের সঠিক পথে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement
Advertisement

Check Also

স্বাস্থ্য দপ্তরের আরও প্রায় ১১০০ চিকিৎসক ও কর্মী নিয়োগে উদ্যোগ নিল রাজ্য

Advertisement স্বাস্থ্য দ’প্ত রের আরও প্রায় ১১০০ চিকিৎসক ও কর্মী নিয়োগে উদ্যোগ নিল রাজ্য। ওয়েস্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!