Home / আন্তর্জাতিক / জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কুমিরের মুখ থেকে সন্তানকে যেভাবে বাঁচালেন বাবা

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কুমিরের মুখ থেকে সন্তানকে যেভাবে বাঁচালেন বাবা

Advertisement
Advertisement

শিকারের দিকে তাক করে এগিয়ে আসছিল একটি মূর্তিমান ‘দৈত্য’। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তার চেষ্টা বিফলেই গেল। সেই ‘শিকার’ আর শিকারির মাঝে এসে পড়েন এক বাবা। তাঁর তৎপরতাতেই প্রাণে রক্ষা পেল বছর চারেকের শিশুকন্যা ও তার বেবিসিটার। ঘটনা আমেরিকার টেক্সাসের।

স্থানীয় সংবাদপত্র সূত্রে জানা গিয়েছে, টেক্সাসের বাসিন্দা অ্যান্ড্রু গ্র্যান্ডের চার বছরের মেয়ে ও তার বেবিসিটার বাড়ির পিছনের জলা’শয়ে মাছ ধরছিলেন। সেই সময় সেখানে উপস্থিত হয়ে পড়ে একটি বড়সড় কুমির। কুমিরের উপস্থিতি জানতে পরেই সেখানে দৌড়ে আসেন অ্যান্ড্রু। কিন্তু কুমিরটি সেখান থেকে যাচ্ছিল না।

অন্ড্রু জানিয়েছেন, কুমিরটি তাঁর সন্তানের প্রায় তিন ফুটের মধ্যে চলে এসেছিল। সন্তান ও বেবিসিটারকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরেও কুমিরটি সেখান থেকে পালায়নি। এবার শুরু হয় আসল লড়াই। কুমিরটি সেখানে ওই ভাবে ঘুরে বেড়ানো বিপজ্জনক বুঝে অ্যান্ড্রু কয়েকটি ফোন করেন সাহায্যের জন্য। কিন্তু সাহায্য আসার আগেই তিনি কুমর’টিকে কব্জা করার চিন্তা করেন।

একটি দড়ির ফাঁ’স তৈরি করেন অ্যান্ড্রু। এবার সেটি কোনও রকমে কুমিরটির মুখে পরিয়ে দেন। দু’টি চোয়ালকে সেই ফাঁ’স দিয়ে বেঁধে ফেলেন। কুমির ধ’রার লোক আসার আগেই তিনি সেটিকে কব্জা করে ফেলেন। কিন্তু কুমিরটিকে জল থেকে তোলা যাচ্ছিল না। কারণ কুমিরটি আকার ও ওজন একটাই বেশি ছিল যে, শুধু দড়ি দিয়ে টেনে তাকে তোলা সম্ভব ছিল না। তাই কাঠের পাটা ও দড়ির সাহায্যে তাকে জল থেকে তুলে আনা হয়।

স্থানীয় সংবাদপত্র সূত্রে জানা গিয়েছে, কুমিরটি প্রায় ১২ ফুট লম্বা, ওজন প্রায় ২৭২ কেজি। কুমিরটিকে উ’দ্ধার করার একটি ছোট ভিডিয়ো আপলোড হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কুমিরটিকে উ’দ্ধারের সেই ভিডিয়ো এই মুহূর্তে ভাইরাল।

Advertisement
Advertisement

Check Also

দুবাই কোরআন প্রতিযোগিতায় জিতে ৫৩ লাখ টাকা পেল বাংলাদেশি বালক

Advertisement দুবাই কোরআন অ্যাওয়ার্ড জিতল বাংলাদেশি বালক হাফেজ মোহাম্মদ তরিকুল ইস’লাম। বৃহস্পতিবার দুবাইয়ের কালচারাল অ্যান্ড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!