সুশান্তর মৃ’ত্যু নিয়ে নিজেকে আর ধরে রাখতে না পেরে যা বলে দিলেন রিয়া

এতদিন পুরো বিষয়টা শক্ত হাতেই সামলাচ্ছিলেন। সুশান্তের আকস্মিক মৃ’ত্যু থেকে পু’লিশের জেরা- সব ক্ষেত্রেই দৃঢ় মনের পরিচয় দিয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। কিন্তু এবার তিনি ভেঙে পড়লেন। একাধিক অ’ভিযোগে জর্জ’রিত অ’ভিনেত্রী নতুন ভিডিও বার্তায় চোখের জল ধরে রাখতে পারলেন না।

সুশান্ত সিং রাজপুতের অকাল মৃ’ত্যুর জন্য বান্ধবী রিয়াকেই কাঠগড়ায় তুলেছে অ’ভিনেতার পরিবার। তাদের অ’ভিযোগ, রিয়ার জন্যই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন সুশান্ত। তাকে রীতিমতো ভ’য় দেখানো হতো। তার ওপর ‘কালা জাদু’ও করেছেন অ’ভিনেত্রী।

এমনকী’ সুশান্তের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে বিপুল পরিমাণ টাকাও নিজের দখলে করেছেন। এমনই একাধিক অ’ভিযোগে জর্জ’রিত রিয়া এবার আর নিজেকে শক্ত করে ধরে রাখতে পারলেন না। তার পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে।

সেখানেই বার্তা দিতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন প্রয়াত সুশান্তের গার্লফ্রেন্ড। তার বি’রুদ্ধে ওঠা অ’ভিযোগের পর এই প্রথম নিজে থেকে কোনো ভিডিও বার্তা দিলেন রিয়া। ভিডিওতে রিয়া জানান, দেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি তার সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে। সত্যিটা সামনে আসবেই। অ’ভিনেত্রী বলেন, আমা’র ঈশ্বর এবং বিচার ব্যবস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা আছে।

আমা’র নামে ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যমে নানা কুকথা বলা হচ্ছে। কিন্তু আমা’র বিশ্বা’স, আমি সুবিচার পাবই। আইনজীবীর পরাম’র্শ মতো আমি কোনো বিষয়ে মন্তব্য করব না। সত্যের জয় হবেই। উল্লেখ্য, এই ভিডিওটির আগে রিয়ার একটি পুরনো ভিডিও হঠাত করেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাই’রাল হয়ে যায়।

যেখানে তাকে বলতে শোনা যায়, তার বয়ফ্রেন্ড নিজেকে বড় গুণ্ডা মনে করে। কিন্তু আসলে তিনিই তার বয়ফ্রেন্ডের রাশ নিজের হাতে রাখেন। তিনি সেখানে বলছিলেন, ও জানে না যে, আসল ডন আমি। নিজের হাত নোংরা না করে অন্যদের দিয়ে কাজ করিয়ে নিই।

যেমন, আমি ওকে কোনো নির্মাতার কাছে গিয়ে হফতা জমা করার জন্য বলতে পারি। এমনকী’ এসব রেকর্ড করতেও এক সময় বারণ করেন তিনি। ভিডিওটি ভাই’রাল হয়ে যাওয়ায় টিম রিয়ার পক্ষে সাফাইও দিয়েছে।

বলা হয়, একটি দৃশ্যের অ’ভিনয় করছিলেন তিনি। যদিও এরপরও এ নিয়ে জলঘোলা বন্ধ হয়নি। এদিকে, মুম্বাই পু’লিশকেই সুশান্ত মৃ’ত্যু ত’দন্তের ভা’র দেওয়া নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রিয়া। ৫ আগস্ট সেই মা’মলার শুনানি।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!