Breaking News
Home / সারা দেশ / যেভাবে ছদ্মবেশে লুকিয়ে থেকেও পার পেল না শাহেদ, যেখান থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

যেভাবে ছদ্মবেশে লুকিয়ে থেকেও পার পেল না শাহেদ, যেখান থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

Advertisement
Advertisement

বোরকা পরা অবস্থায় রিজেন্ট হাসপাতা’ল প্রতারণা মা’মলার প্রধান আসামি ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান শাহেদকে গ্রে’ফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব)। পালিয়ে থাকতে তিনি তার অবস্থান পরিবর্তন করেন। চুলের কালো রং করে এবং গোঁফ কে’টে তিনি চেহারা বদলের চেষ্টা করেন।

বুধবার (১৫ জুলাই) সকালে তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দরে সাহেদকে ঢাকায় আনার পর র‌্যাবের অ’তিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।  তিনি বলেন, ‘শাহেদ ঘনঘন তার অবস্থান পরিবর্তন করায় আম'রা তার কাছে গিয়েও ধরতে পারছিলাম না।

গতরাতে তিনি সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে দেবহাটা থা’নার কমলপুর গ্রামের ইছামতি খালের পাশে ভারতীয় সীমানায় অবস্থান করছিল। কারণ, নদীর যে সীমানা সেখানে কা’টাতারের বেড়া খুবই দুর্বল হয়। এতে তার দেশত্যাগ সহজ ছিল।’  কর্নেল তোফায়েল বলেন, ‘সে ওই সীমান্ত পার হয়ে দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা করেছিল।

মঙ্গলবার রাত থেকেই সেখানে সে অবস্থান নেয়। ভোরে তার সীমান্ত ত্যাগ করার কথা ছিল। কিন্তু আমা’দের গোয়েন্দা দল, র‍্যাব-৬ তাদের সহযোগিতায় আগে থেকে ওঁৎ পেতে ছিল। বেশ কয়েকবারই যখন সে নিজের পরিকল্পনা পরিবর্তন করছিল, তাই র‍্যাব বেশি সতর্ক ছিল।’

তিনি বলেন, ‘শাহেদের সঙ্গে স্থানীয় দালালরা ছিল। যারা সীমান্ত পারাপারা করে। এমন কিছু দালালের নামও আম'রা পেয়েছি, তাদের ধরতে কাজ করছি। বাচ্চু দালাল নামে একজন দালাল মাঝি ছিল। আরও দু-একজন তাকে নৌকায় পার হতে সাহায্য করছিল। আম'রা তাদের নাম বলছি না, তারা আমা’দের নেটওয়ার্কে রয়েছে। তাদেরকেও চেষ্টা করছি ধরে ফেলার।’

শাহেদ যখন সীমান্ত পার হবার চেষ্টা করে তখন একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলিও উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।
তিনি বলেন, ‘আম'রা তাকে ঢাকায় এনেছি তার তথ্যের যাচাই-বাছাই করার জন্য। কিছু আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করব। এরপর সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।’

এর আগে বুধবার ভোর সোয়া ৫টার দিকে সাতক্ষীরা সীমান্তের দেবহাটা থা’নার সাকড় বাজারের পাশে অবস্থিত লবঙ্গবতী নদী থেকে নৌকায় পালিয়ে থাকা অবস্থায় অ’ভিযান চালিয়ে তাকে গ্রে’ফতার করে র‌্যাবের বিশেষ টিম। গ্রে’ফতারকালে তার কাছ থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

করো’না পরীক্ষায় প্রতারণার মা’মলায় বহুল আ’লোচিত রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদকে গ্রে’প্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যা’­ব)। বুধবার (১৫ জুলাই) ভোরে সাড়ে পাঁচটায় সাতক্ষীরার দেবহাটা সীমান্ত থেকে অ’বৈধ অ’স্ত্রসহ তাকে গ্রে’প্তার করা হয়।

তিনি সাথে করেই এই অ’বৈধ অ’স্ত্র বহন করছিলেন। র‌্যা’­বের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ এ তথ্য জানান।তিনি জানান, সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে অ’স্ত্রসহ তাকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। সেখান থেকে তাকে ঢাকায় আনার জন্য র‌্যা’­বের একটি বিশেষ টিম সাতক্ষীরা যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, সাহেদ ভা’রতে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করছিল। সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজে’লার কোম’রপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদী তীর সীমান্ত থেকে আনুমানিক ৫.০০ থেকে ৫.৩০ এর দিকে তাকে গ্রে’প্তার করা হয়। এর আগেও একবার একই সীমান্ত দিয়ে ভা’রতে পালিয়েছিলো সাহেদ।

সকাল নয়টার দিকে হেলিকপ্টারযোগে তাকে ঢাকায় আনা হবে। এর আগে রিজেন্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ পারভেজকে গ্রে’প্তার করে র‌্যা’­ব। মঙ্গলবার বিকালে গাজীপুরের কাপাসিয়া থেকে তাকে গ্রে’প্তার করা হয়। সরকারের সঙ্গে চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে টাকার বিনিময়ে করোনাভাই’রাস শনাক্তের নমুনা সংগ্রহ করা

এবং ভু’য়া সনদ দেওয়ার অ’ভিযোগ ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতা’লে অ’ভিযান চালায় রেব। পরদিন উত্তরা পশ্চিম থা’নায় র‌্যা’­ব বাদী হয়ে মো. সাহেদকে এক নম্বর আ’সামি করে মা’মলা করে। সেই মা’মলায় ৯ দিন পলাতক থাকার পর গ্রে’প্তার হলেন মো. সাহেদ।

Advertisement
Advertisement

Check Also

স্বা’মীকে স্ব’প্নে দেখেই গ’র্ভবতী হয়ে পড়লেন গৃহ’বধূ

Advertisement এমন অনেক ঘটনা’র সাক্ষী আম’রা থাকি যেটা সম্পূ’র্ণ কাক’তালীয়। কী’ভাবে ঘটল এই ঘটনা তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!