দুটি বিড়াল যেভাবে বাঁচিয়ে দিল মানুষের প্রাণ দেখুন – OnlineCityNews

দুটি বিড়াল যেভাবে বাঁচিয়ে দিল মানুষের প্রাণ দেখুন

মাত্র ৩০ সেকেন্ডের জন্য বেঁচে গিয়েছেন, কাকতালীয়ভাবে একটি বিড়াল জামায় টান দেওয়ায় সিলিং ফ্যানের নিচ থেকে সরে আসেন। এরপর বিকট শব্দে ভেঙে পড়ে সিলিং ফ্যান। এমলনই ভয়ংকর অভিজ্ঞতা শেয়ার ভকরেছেন ফারহানা হক নীলা নামের ঢাকায় বসবাস্কারী এক নারী।

নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে নীলা লিখেছেন, পিসিতে বসে কাজ করছিলাম, হঠাৎ মা বিড়াল আর বাচ্চা বিড়াল এসে আমা’রে স্কার্ট কামড়ে ধরে টানছিলো। ওরা আমা’র পোষা নয় তবে আমা’র বাসাতেই বাচ্চাগুলোর জন্ম হয়েছিল।

ভাবলাম, কাল একবার বিস্কিট খেতে দিয়েছিলাম আজ বোধহয় আবার বিস্কিট খেতে চাচ্ছে। চেয়ার থেকে ২ পা সামনে এগোতে বিকট শব্দ। ভয়ে চিৎকার করে উঠলাম কে কে বলে। প্রথমে ভেবেছি কেউ জানলার গ্লাস ভেঙ্গে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করছে।

পরে ভেবেছি কম্পিউটার বাস্ট হয়ে গেছে। খুব ভয়ে ভয়ে রুমের দরজার দিকে আগালাম। দৃশ্য দেখে ভয় পেয়ে গেলাম। ঠিক আমা’র মাথার উপরে থাকা ফুল স্পিডে চলন্ত ফ্যান ছিড়ে মাটিতে পড়ে গেছে।

এমনই একটি ভয়ংকর ঘটনা শেয়ার করেছেন একজন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী। ফারহানা হক নীলা নামের ওই নারী,  তিনি বলেন, প্রায় ১০-১৫ মিনিট পর স্বাভাবিক হলাম। আর একটু দেরি হলেই, কি হতো!? আর ঘটনাটি ঘটে যাওয়ার পর। বেড়াল ২টি

স্বাভাবিক। প্রায় এক মাস আগে এই মা বিড়ালটা আমা’র এই রুমেই, খাটের নীচে চারটি বাচ্চা জন্ম দেয়। এ মাসের শুরুর দিকে বাচ্চাগুলো হাঁটা শিখলে আমা’র ঘর থেকে বের হয়ে বারান্দায় পানির মেশিনের জালি ঘরে থাকে আর চলাফেরা করে। আজ হঠাৎ এই মা বিড়াল আর একটা বাচ্চা জানালা দিয়ে এসে ঢুকে আমাকে বাঁ’চায়ে দিয়ে গেল। সৃষ্টিকর্তার কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.