ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে কেঁদে ভাসালেন হেমা, মেয়ের বার্তায় আবেগঘন ড্রিম গার্ল – OnlineCityNews

ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে কেঁদে ভাসালেন হেমা, মেয়ের বার্তায় আবেগঘন ড্রিম গার্ল

রবিবার ইন্ডিয়ান আইডল ১২-এ বিচারক আসনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্রিম গার্ল অ’ভিনেত্রী হেমা মালিনী। সোনি টিভির অফিলিয়াল পেজের প্রোমোতে উঠে এসেছে সেই ভিডিও।

প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে, মেয়ে এষা দেওল বলছেন, হেমা মালিনীকে মা হিসেবে পেয়ে তিনি আশীর্বাদপ্রা’প্ত মনে করেন নিজেকে। তিনি বলেন, ‘আপনাদের সবার কাছে হেমাজী একজন ড্রিম গার্ল ‘হতে পারে,

তবে আমা’দের কাছে তিনি শুধুমাত্র ড্রিম গার্ল নন আমা’দের মা-ও’। পাশাপাশি আরো বলেন, নাচই তাঁদের প্রথম ভালবাসা। ভারতীয় ক্লাসিকাল নৃত্যশিল্পে এবং সংস্কৃতিতে হেমা মালিনী, এষা এবং অহনা দেওলের প্রচুর অবদান রয়েছে, এষার কথায়।

তিনি বলেন, ‘আমি খুব গর্ব অনুভব করি তোমা’র জন্য এবং আশীর্বাদপ্রা’প্ত তোমাকে মা হিসেবে পেয়ে’। শো-এর মধ্যে জায়েন্ট স্ক্রিনে মেয়ের আবেগঘন বার্তা পেয়ে চোখে জব ধরে রাখতে পারেননি ড্রিম গার্ল হেমা।

চোখের জল মুছতে মুছতে তিনি বলেন, ‘এষা এবং অহনা আমা’র দুই আদুরে মেয়ে। ধন্যবাদ আমাকে এত সুন্দর জীবন এবং খুশি দেওয়ার জন্য’। রিপোর্ট বলছে, ইন্ডিয়াল আইডল ১২-এ গিয়ে নিজের প্রেম কাহিনির গল্প ফাঁ’স করেন হেমা।

তিনি বলেন, শ্যুটিংয়ের সময় মূলত তাঁর স’ঙ্গে সব সময় তাঁর মা অথবা কাকিমা যেত। তবে ধ’র্মেন্দ্র স’ঙ্গে একটি গানের শ্যুটিংয়ের সেটে তাঁর বাবা গিয়ে হাজির হয়ে ছিলেন। কারণ ধ’র্মেন্দ্রর স’ঙ্গে অ’ভিনেত্রীর বন্ধুত্বের সম্পর্ক জানার পর তাঁর বাবার মনে আশ’ঙ্কা ছিল, তাঁদের দুজনকে একস’ঙ্গে সময় কা’টাতে দেবেন না তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমা’র মনে আছে শ্যুটিং স্পটে গাড়িতে করে যাওয়ার সময় আমা’র বাবা আমা’র পাশের সিটে বসত। কিন্তু আর কোথাও জায়গা না থাকার জন্য আমা’র বাবার পাশে ধ’র্মেন্দ্রকে বসতে ‘হত’।

অ’ভিনেত্রী হেমা মালিনীকে শেষবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল রমেশ সিপ্পি পরিচালিত ‘সিমলা মিরচ’ ছবিতে। তাঁর পাশাপাশি ছবিতে অ’ভিনয় করেছিলেন রাজকুমা’র রাও এবং রাকুলপ্রীত সিং। বহু টালবাহানার পর গত বছর জানুয়ারি মাসে ছবি মুক্তি পায় এই ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *