উপার্জন নেই, অর্থকষ্টে ভুগছেন ‘কল হো না হো’-র শিশুশিল্পী, অভিনয়কে জানালেন বিদায় – OnlineCityNews

উপার্জন নেই, অর্থকষ্টে ভুগছেন ‘কল হো না হো’-র শিশুশিল্পী, অভিনয়কে জানালেন বিদায়

অতীতে বলিউডে শিশুশিল্পী হিসেবে জনপ্রিয় হওয়া সত্বেও, তিনি এখন উপার্জনহীন। মাত্র ২৫ বছর বয়সেই অ’ভিনয়কে বিদায় জানাতে চান।মনে আছে শাহরুখ খানের “কাল হো না হো” সিনেমা’র শিশুশিল্পী জিয়াকে? তার আসল নাম, ঝনক শুক্লা (Jhanak Shukla)।

এখন সে আর ছোট্টটি নেই, অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছে। ছেলেবেলায় শিশুশিল্পী হিসেবে এত খ্যাতি পেলেও বড় বয়সে লোকচক্ষুর আড়ালেই তিনি। অথচ তাঁর কেরিয়ারের সূত্রপাত ছিল সাড়া জাগানো।

ঝনকের মা সুপ্রিয়া নিজেই অ’ভিনেত্রী। অ’ভিনয় করেছেন ‘পরিণীতা’, ‘লগে রহো মুন্নাভাই’, ‘থ্রি ইডিয়টস’-সহ বেশ কিছু ছবিতে। বাবা, হরিল শুক্ল পেশায় তথ্যচিত্র পরিচালক। বাবা, মায়ের ধা’রা অনুসরণ করেই অ’ভিনয়ে এসেছিলেন ঝনক।

সম্প্রতি তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মাধ্যমে। ভিডিওতে তার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছেন ঝনক। শিশুশিল্পী হিসেবে বিভিন্ন সিনেমা এবং ধা’রাবাহিকে কাজ করার পর অ’ভিনয় জগৎ থেকে বিরতি নিয়েছিলেন তিনি।

ঝনক জানান, ‘যদি অ’ভিনয়ের কথা বলেন, বিরতির পর থেকে খেই হারিয়ে ফেলি।’ এই ভিডিওটি পোস্ট করেছে ব্রাট ইন্ডিয়া। শুধু “কাল হো না হো” তে কিং খানের সাথে অ’ভিনয়ই নয়,

জনপ্রিয় ধা’রাবাহিক “সোনপরী “তে প্রিন্সির চরিত্রে এবং “করিশ্মা কা করিশ্মা” ধা’রাবাহিকে মূল চরিত্রে অ’ভিনয় করেছিলেন তিনি। শিশুশিল্পী হিসেবে একটা সময় পুরো ইন্ডাস্ট্রি দাপিয়ে বেড়াতেন তিনি।

বর্তমানে ২৫ বছর বয়সী ঝনক একজন আর্কিওলোজিস্ট।তিনি জানান এক সময় তিনি ভাবতেন, বড় হয়ে মাত্র ২৪ বছর বয়সেই অনেক টাকা উপার্জন করবেন এবং বিয়ে করবেন। এখন নিজের সেই ধারণায় হাসি পায় তার।

তিনি জানান, ‘এখন আমা’র বয়স ২৫, তবে আমি কিছুই উপার্জন করি না’। বর্তমানে নিউজিল্যান্ডের এক জাদুঘরে কাজ করতে এবং সেখানেই নিরিবিলিতে জীবন যাপন করতে চান তিনি।

তবে শিশুশিল্পী হিসেবে অনেক কাজ করে থাকলেও বড় বেলায় আর পেছন ফিরে তাকাতে চান না তিনি। অ’ভিনয় জীবন পেছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছেন। তবে আজও কিছু মধুর মুহূর্ত মনে পড়লে ঠোঁটের কোণে একটা হালকা হাসি ফুটে উঠে তার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *