কপাল ভর্তি দানের সিঁদুর, বিদায় শেষে বরকে স্কুটিতে চাপিয়ে সটান শ্বশুরবাড়িতে নববধূ! ভাইরাল… – OnlineCityNews
Breaking News
Home / অন্যান্য / কপাল ভর্তি দানের সিঁদুর, বিদায় শেষে বরকে স্কুটিতে চাপিয়ে সটান শ্বশুরবাড়িতে নববধূ! ভাইরাল…

কপাল ভর্তি দানের সিঁদুর, বিদায় শেষে বরকে স্কুটিতে চাপিয়ে সটান শ্বশুরবাড়িতে নববধূ! ভাইরাল…

Advertisement
Advertisement

টুকটুকে লাল বেনারসি। শাঁখা-পলা, গা ভর্তি সোনার গয়না, মাথায় সোলার মুকুট। সবেমাত্র বাসি বিয়েতে সিঁদুরদান শেষ হয়েছে। তারপরেই সবাইকে তাক লাগিয়ে বরকে স্কুটির পিছনে চাপিয়ে শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিল নববধূ।

রাস্তায় বর-কনেকে দেখতে হাঁ করে দাঁড়িয়ে পড়লেন আট’ থেকে আশি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও পোস্ট ‘হতেই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

স্কুটি চালানোটা প্যাশন। তাই বিয়ের পরে এ ভাবে বরকে পিছনে বসিয়ে শ্বশুড়বাড়িতে গিয়ে বেজার খুশি শিলিগু’ড়ির শক্তিগড়ের বাসিন্দা সুদেষ্ণা সরকার। শিলিগু’ড়ি থেকে স্কুটিতে চাপিয়ে বরকে নিয়ে আপার বাগডোগরা যান বিয়ের পরের দিন সকালে।

বর-বউয়ের এই অ’ভিনব কীর্তি ক্যামেরাব’ন্দি করেছেন সুদেষ্ণার দাদা সৌত্রিক বসু। তিনিই সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন ম’ঙ্গলবার সন্ধ্যায়। ইতিমধ্যেই সেই ভিডিও দেখে ফেলেছেন কয়েক হাজার মানুষ।

সুদেষ্ণার বর কৃষ্ণ দেব পেশায় ব্যবসায়ী। বাড়ি থেকে বিয়ে ঠিক হয় দু’জনের। এ দিন সকাল সকাল বউকে সিঁদুর পরিয়ে, ধূতি-পাঞ্জাবি স্কুটির পিছনে চেপে বসেন তিনি। কৃষ্ণ জানিয়েছেন, “বিয়ের আগেই নিজের ইচ্ছের আমাকে জানিয়েছিল সুদেষ্ণা।

আমিও রাজি হয়ে যাই। সেই মতোই বাসি নিয়ে শেষ ‘হতেই বিয়ের সাজে বেরিয়ে পড়েছিলাম। গোটা বি’ষয়টা এত উপভোগ্য হবে ভাবিনি।’ এ দিকে, সুদেষ্ণার দাদা সৌত্রিক বসু জানিয়েছেন, বোন স্কুটি চালাতে ভালবাসে।

তাই আমর’া কেউ ওর ইচ্ছেতে বাধা দিইনি। এমনকি শ্বশুরবাড়ি থেকেও কোনও বাধা দেয়নি। বরং সকলেই বি’ষয়টি খুবই মজার ছলে নিয়েছেন। বরং সকলে ওর ভাবনাকে সম্মান সমর’্থন করেছে।

Advertisement
Advertisement

Check Also

বড় হনুমান ও বিড়ালের মধ্যে তু-মু-ল ল-ড়া-ই, বিড়ালকে কা-ম-ড় দিতেই ঘটলো বি-প-ত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

Advertisement আম'রা আমা’দের প্রতি দিনকার জীবনে অনেক ধরনের ঘটনা দেখে থাকি কখনো কখনো সেই সমস্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!