পরিস্থিতি খারাপ হলে কঠোর যে নির্দেশনা আসবে – OnlineCityNews
Breaking News
Home / সারা দেশ / পরিস্থিতি খারাপ হলে কঠোর যে নির্দেশনা আসবে

পরিস্থিতি খারাপ হলে কঠোর যে নির্দেশনা আসবে

Advertisement
Advertisement

জীবন-জীবিকা ও দেশের অর্থনীতির স্বার্থে ‘পরী’ক্ষামূলক’ভাবে’ লকডাউন তুলে দিয়ে সার্বিক বিষ’য়ে কঠোর নজ’রদা’রি করছে সরকার। তবে দেশে করো’না পরিস্থি’তির অবনতি হলে ‘কঠোর লকডা’উনের’ মতো সিদ্ধা’ন্ত নেওয়া হতে পারে।

লকডাউন তুলে নেওয়ার পর যাতে মানু’ষ স্বাস্থ‌্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতে বাধ‌্য হয়, সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদে’র নির্দে’শনা দিয়েছেন প্রধানম’ন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার রাতে গণভ’বনে করো’না মোকাবিলা সম্পর্কিত বি’শেষজ্ঞ ক’মিটির সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে করোনা প’রিস্থিতি নিয়ে সা’র্বিক আলো’চনা হয়েছে।

বৈঠকে স্বাস্থ্য’মন্ত্রী জাহি’দ মালেক, বিদায়ী স্বাস্থ্য সচিব আসাদুল ইস’লাম, করো’না মোকাবিলা সম্পর্কি’ত বিশেষ’জ্ঞ কমিটির সভাপতি অ’ধ্যাপক ডা. শহিদুল্লাহ, কমিটির সদস্য অধ্যা’পক মাহমুদুল হাসান এবং কমিটি’র সদস্য সচিব অধ্যাপ’ক ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও বৈঠকে প্রধান’মন্ত্রীর মুখ্য সচিব ডা. আহমেদ কা’য়কাউস, প্রধান’মন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ এবং প্রধানম’ন্ত্রীর সচিব তোফা’জ্জেল হোসেন মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, লক’ডাউন খুলে দেওয়া এবং প’রবর্তী স্বাস্থ‌্য’বিধি মেনে চলা নিয়ে আলো’চনা হয়েছে। যদি দেখা যায়, সংক্র’মণ বেশি বাড়ছে তাহ’লে সর’কার আবার কঠোর লকডা’উ’নের পথে হাঁটতে পারে।

লকডা’উন উ’ঠিয়ে নেওয়া’র অর্থ হলো দেশের অ’র্থনৈ’তিক কর্মকা’ণ্ডে গতি আনা, নি’ম্ন আ’য়ের মানুষ যারা খু’ব সংক’টে আছে তাদের একটু সুবি’ধায় রাখা। করো’না প্রা’দুর্ভাবের পর সর’কার লকডা’উন দি’লেও মানুষ সেগুলো অনেকে মানে’নি। ঈদে দলে

দলে গ্রা’মের বাড়ি ছুটে গেছেন, আবা’র ঢাকায় ফিরেছেন। এজন‌্য সর’কার চাচ্ছে, স্বাস্থ’‌্য’বিধি এবং শা’রীরি’ক দূর’ত্ব মেনে সব অর্থনৈ’তিক কর্মকা’ণ্ড চলুক। এজন‌্য নির্দে’শনা কঠোর’ভাবে প্রতিপা’লনের জন‌্য নির্দেশনা দিয়ে’ছেন প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠকের বিষয়ে জা’নতে চা’ইলে অধ্যাপক ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘জীবন এবং জীবি’কার মাঝ’খানে কী করে আম'রা ব‌্যা’লেন্স করতে পারি, সেটি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেটার ওপর জোর দিয়েছেন সেটি হচ্ছে, অর্থ’নীতি আমা’দের রিভা’ইভ করে রাখ’তে হবে, কিন্তু একই সময়ে আ’মাদের রোগটা যাতে না হয়।

সেজন‌্য জনগণকে যে নির্দে’শনার কথা আম'রা বলি, সেগুলো যাতে স্ট্রংলি ফ’লো করি, উনি সেটার ওপর বেশি জোর দিয়েছে’ন। এছাড়া, অনেক কিছু নিয়েই আলো’চনা হয়েছে। তবে আমা’দের স্বাস্থ”‌্যবিধি মানার ক্ষেত্রে মন্ত্রিপ’রিষদ বিভাগ থেকে যে নির্দেশ’নাটা দেওয়া হয়েছে, সেটা যাতে আম'রা পুঙ্খা’নুপুঙ্খভা’বে পালন করি।”

ডা. এ বি এম আবদুল্লা’হ বলেন, ‘লকডা’উন থাকা’র মধ‌্যে মানুষ কিন্তু সেটি মানছে না। অথচ এটি মানা খুব দর’কার ছিল। ভবিষ‌্য’তে যদি পরিস্থি’তির অবনতি হয় তাহলে সরকারের কঠোর থেকে কঠোর’তর লক’ডা’উনে যা’ওয়া ছাড়া আর উপায় থাক’বে না।’

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হা’সিনা সব ধ’রনের সমা’বেশ এবং জমায়েত না করতে, কর্মক্ষেত্র-গণপ’রিবহনে মাস্ক-গ্লা’ভস পরিধান’সহ স্বাস্থ‌্যবিধি ও শা’রী’রিক দূর’ত্ব মেনে চলতে নির্দে’শনা দিয়েছেন। এছাড়া, মৃদু উপসর্গ নিয়ে হাসপা’তালে ভর্তি না হওয়া, অযথা করো’না পরীক্ষা করি’য়ে টেস্টিং কিটের ওপর চাপ না ফেলা, গ্রাম প’র্যায়ে ক’রোনা সম্প’র্কে আরো সচেতনতা বাড়ানো’সহ সার্বিক বিষয়ে স্বাস্থ‌্য মন্ত্র’ণালয়কে ক’ঠোর মনি’টরিংয়ের নি’র্দেশনা দি’য়েছেন সরকা’রপ্রধান।

Advertisement
Advertisement

Check Also

সর্বাত্মক লকডাউনে কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

Advertisement Advertisement করো’নার ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে ১৪ এপ্রিল (বুধবার) থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে এক সপ্তাহের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!