ভোর রাতে জ্বা’লিয়ে দেওয়া হল ২৬ বাড়ি – OnlineCityNews

ভোর রাতে জ্বা’লিয়ে দেওয়া হল ২৬ বাড়ি

কক্স’বাজা’রের চক’রিয়ায় মাতা’মু’হুরী নদীতে জে’গে ওঠা চরের (ভরাট চর) দ’খল নিতে বৃহস্পতিবার (১৪ মে) ভোর’রাতে সে’হরি খাও’য়ার পর স’শ’স্ত্র একদ’ল গ্রাম’বাসী একটি পাড়ায় না’রকী’য় তা’ণ্ডব চালায়।

এ সময় অন্তত ২৬টি বস’তবা’ড়িতে আ’গু’ন দিয়ে পু’ড়ি’য়ে দেও’য়া হয়েছে। লু’ট করে নেওয়া হয়ে’ছে নগদ টাকা, গ’বাদি প’শু, মূল্যবান মা’লামা’লসহ অ’ন্তত কোটি টাকার সম্পদ। এই তা’ণ্ডবে আ’গু’নে পুড়ে মা’রা গেছে’ন পঞ্চা’শো’র্ধ্ব এক নারী। গু’লিবি’দ্ধ ও ধা’রালো অ’স্ত্রের কোপে আ’হ’ত’ হয়েছেন অন্তত ২০ জন।

আ’হত’দের উপজে’লা স্বাস্থ্য ক’মপ্লে’ক্সে ভ’র্তি করা হয়েছে। গু’রু’তর আ’হ’ত কয়েকজনকে চট্টগ্রাম মে’ডিক্যাল কলেজ হাস’পাতা’লে পাঠা’নো হয়েছে। গ্রামবাসী জানায়, তা’ণ্ড’বের সময় ভী’তিকর পরি’স্থিতি সৃষ্টি করতে সশস্ত্র স’ন্ত্রাসী’রা অন্ত’ত ৫০ রাউন্ড ফাঁ’কা গুলি ছোড়ে। ওই পা”টির নাম খিল’ছাদক।

আ’গু’নে ‘পু’ড়ে মা’রা’ যাওয়া নারীর নাম ম’নো’য়ারা বেগম (৫৫)। তিনি মো’জাহের আহমদের দ্বিতীয় স্ত্রী। আ’হ’তদের মধ্যে যাঁদে’র নাম পাওয়া গেছে তাঁরা হ’লেন—মোজাহে’র আহমদ (৭০), সা’জ্জাদ হোসেন (২৫), মো. মু’রাদ (২৩), আবু ছালেক (৪২), নবীর হোছাইন (৫০), মো. বাবলু (২২) ও আলম (৪৫)।

খিল’ছাদক পা’ড়াবা’সীর অ’ভিযোগ, দীর্ঘ কয়েক যু’গ ধরে তাঁদের ওই পাড়ার বিশাল অংশ মাতামুহুরী নদীর ভাঙনে বিলীন হয়ে যায়। তবে কয়েক বছর ধরে নদী’তে ত’লিয়ে যাওয়া সেই জায়গা ফের জেগে ওঠে। যা’দের জায়গা জেগে উঠে তারা সেই জায়গায় বসতি গড়ে তোলে। কিন্তু নদীর পা’র্শ্ববর্তী ইউ’নি’য়ন বরইতলীর গোবি’ন্দ’পুর গ্রামের সশস্ত্র লোকজন সেখানে এসে বারবার জেগে ওঠা জায়গা দ’খলের চেষ্টা চালায়।

সব শেষ গতকাল ভো’ররা’তে নারকীয় তাণ্ডব চালিয়ে খিল’ছাদ’কপাড়ার অন্তত ২৬টি বস’তবাড়ি’তে আ’গু’ন লাগিয়ে দি’য়ে লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় বাড়িগু’লো পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সময় কোটি টাকার মা’লা’মাল লু’ট ছা’ড়াও কয়েক কোটি টাকা’র সম্পদের ক্ষতি করে তারা।

নার’কীয় এই তা’ণ্ডবে’র খবর পেয়ে ঘট’নাস্থ’ল প’রি’দর্শনে যান কক্স’বাজার-১ আসনের সংসদ স’দস্য জাফ’র আলম, উপ’জে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা সৈয়দ শামসু’ল তাবরীজ, ওসি হাবিবু’র রহমান, উ’পজে’লা ফায়ার সা’র্ভিসে’র কর্মক’র্তা মো. সাই’ফুল হাছা’ন, হারবাং পু’লিশ ফাঁ’ড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আমিনুল ইস’লাম, এসআই অপু বড়ুয়া, বরইতলী ও কৈয়া’রবিল ইউ’নিয়ন পরিষদ চেয়া’রম্যান জালাল আহমদ সিকদার ও মক্কী ইকবাল হোসেন।

ওসি হাবি’বুর রহমান জানা’ন, কৈয়ার’বিলের খি’লছা’দক অংশে মা’তামু’হুরী ন’দীতে জেগে ওঠা চরের দখল নিতে এই না’রকীয় তাণ্ডব চালায় পাশের ইউ’নিয়’নের একদল গ্রামবাসী। যারা এই তা’ণ্ড’বের সঙ্গে জ’ড়িত তাদের শ’না’ক্তের চেষ্টা চলছে।

উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা সৈয়দ শামসুল’ তাব’রীজ বলেন, ‘অমা’নবিক এই ধ্বংসযজ্ঞে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর তালিকা করে জমা দিতে ই’উ’নিয়ন পরিষদ চেয়া’রম্যান’কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এসব প’রিবারকে সরকা’রি সহায়তা দিয়ে পুনর্বা’সন করা হবে। এ ছাড়া প্রা’থমিক’ভাবে উপজে’লা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরি’বার’গুলোকে সহায়তা দেওয়া হবে। ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

কক্স’বাজার-১ আস’নের সংসদ সদস্য জাফর আলম বলেন, ‘ক্ষতিগ্র’স্ত ২৬টি পরিবারকে প্রাথমিকভাবে এক বস্তা করে চাল, চার বা’ন্ডি’ল করে ঢেউটিন দেওয়া হয়েছে। যাতে তাদের খাদ্য ও বাসস্থান নিশ্চিত হয়। আর যারা এই না’র’কীয় তাণ্ড’বের সঙ্গে জড়িত তাদে’র খুঁ’জে বের করে আ’ইনের আওতায় আনতে পু’লিশ’কে নি’র্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *